ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে অব্যবস্থা, ক্ষোভ গ্রামবাসীদের

114

বুনিয়াদপুর: স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে ভ্যাকসিনের নেওয়ার ভিড় কমানোর জন্য শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে স্কুলে স্কুলে ভ্যাকসিন প্রদান। তা সত্ত্বেও প্রশাসনের গাফিলতির কারণে প্রথম দিনের ভ্যাকসিন কেন্দ্রে ক্ষোভে ফেটে পড়ল গ্রামের বাসিন্দারা। ঘটনাটি ঘটেছে বংশিহারি ব্লকের মহাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের কুসকারি হাইস্কুলে। সরকারি নির্দেশে কুসকারি হাইস্কুল, সুদর্শন নগর হাইস্কুল ও শ্রীরামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করা হয়। স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রত্যেকটি বাড়ি গিয়ে ভ্যাকসিনের স্লিপ প্রদান করবেন। পরের দিন সেই স্লিপের ভিত্তিতে ভ্যাকসিন পাবেন গ্রাহকরা।

তবে, জেলা থেকে সঠিক সময়ে স্লিপ এসে না পৌঁছোনোয় বিএমওএইচের নির্দেশে আশাকর্মীরা প্রত্যেকে নিজ নিজ এলাকায় ৫০জন অসুস্থ এবং বয়স্কদের ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করেন। এ বিষয়ে কোনরকম প্রচার না হওয়ায় এদিন প্রচুর মানুষ স্কুল চত্বরে লাইন দিয়ে ভ্যাকসিন নিতে জমা হয়। অপরদিকে, আশাকর্মীদের নির্দেশে বয়স্ক ও অসুস্থ ব্যক্তিরা ভিড় করে। ফলে স্লিপ দেওয়াকে কেন্দ্র করে গন্ডগোল বাঁধে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় বংশীহারী থানার পুলিশ, বিডিও সুদেষ্ণা পাল ও পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি গণেশ প্রসাদ। ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক পুলকেশ সাহা বলেন, ‘জেলা থেকে কুপন আসতে দেরি হওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। আগামীতে সব ঠিকঠাকভাবে হবে।‘

- Advertisement -