চাঁচল, ৯ সেপ্টেম্বরঃ রাজ্য সরকারের শিল্পের অগ্রগতিতে শামিল হতে চলেছে উত্তর মালদা। ক্ষুদ্র শিল্প স্থাপনের জন্য সোমবার জমি পরিদর্শন করে গেলেন জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, উত্তর মালদার চাঁচল মহকুমার চাঁচল ২ নম্বর ব্লকের ক্ষেমপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাশিমপুরের বাগানে রাজ্য সরকারের ১৭ একর জমি রয়েছে। এই জমি দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকার ফলে ওই জায়গায় বেশকিছু জমি মাফিয়ারা নিজেদের দখলে করে নিচ্ছিল। এমনটাই অভিযোগ বেশ কিছুদিন ধরে পাচ্ছিলেন জেলা প্রশাসন আধিকারিকরা। তাই ওই জমিতে নতুন করে শিল্প গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয় জেলা প্রশাসন। রাজ্য সরকারের নির্দেশে এদিন মালদা জেলা শাসক ও জেলা সমাহর্তা কৌশিক ভট্টাচার্য চাঁচল মহকুমার অন্যান্য শীর্ষ প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে এই ১৭ একর জমি পরিদর্শনে আসেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মালদা জেলার অতিরিক্ত জেলা শাসক, মহকুমার এসডিও সব্যসাচী রায়, চাঁচল ২ নম্বর ব্লক আধিকারিক, বিএলআরও ও ডিআইসির আধিকারিক, জেলা পরিষদের কৃষি সেচ ও সমবায় কর্মাধ্যক্ষ রফিকুল হোসেন ও পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মৌসুমি মণ্ডল ও পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ প্রদূত সিংহা প্রমুখ।

জেলা শাসক কৌশিক ভট্টাচার্য বলেন, ‘এই জমি ক্ষুদ্র শিল্প গড়ে তোলার জন্য উপযুক্ত। শীঘ্রই পাট শিল্প, দুগ্ধ শিল্প, রেশম শিল্প এবং অন্যান্য ক্ষুদ্র শিল্প গড়ে তোলা হবে। এখানে শিল্পাঞ্চল গড়ে ওঠার ফলে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।’ এছাড়াও এই জমির পাশেই একটি পার্ক তৈরি করা হবে বলে জানান জেলা শাসক।