বর্ধমান, ২৪ জানুয়ারিঃ সোলডার রিপ্লেসমেন্টের অস্ত্রপ্রচার করে দৃষ্টান্ত গড়ল বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের শাখা সুপার স্পেশালিটি বিভাগ অনাময়ে এই অস্ত্রপ্রচার হয়। জটিল এই অস্ত্রপ্রচারের পর সুস্থও আছেন পূর্ব বর্ধমানের মেমারির নুদিপুরের প্রৌঢ়া সাবিত্রী কর্মকার।হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, মাস দেড়েক আগে বাড়িতে পড়ে যাবার পর সাবিত্রীদেবীর বাম কাঁধে মারাত্মক চোট লাগে। চিকিৎসার জন্য পরিবারের সদস্যরা তাঁকে বর্ধমানের অনাময় সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসক বিপ্লব চট্টোপাধ্যায় জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা ও পরীক্ষা নিরীক্ষার পর  তারা  বুঝতে পারেন বিষয়টি জটিল। এরপরেই রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি রেখে বিভাগীয়  চিকিৎসকরা মিলে বিষয়টি নিয়ে নিয়মিত আলোচনা চালিয়ে যান। আলোচনার ভিত্তিতে ঠিক হয় তারা ওই প্রৌঢ়ার সোলডার রিপ্লেসমেন্ট করবেন। এরপরেই শুক্রবার বর্ধমানের অনাময় হাসপাতালে চার ঘন্টার অস্ত্রোপচারে  সফল হয় সাবিত্রীদেবীর সোলডার রিপ্লেসমেন্ট। এই সফল অস্ত্রোপচায়ে অংশ নিয়েছিলেন  আট জনের চিকিৎসক টিম। তিনি জানান, মুম্বাই কিংবা দক্ষিণ ভারতে এই ধরনের অস্ত্রোপচারের জন্য সাত থেকে আট লক্ষ টাকা খরচ হয়। কিন্তু অনাময় হাসপাতালে এক প্রকার বিনামূল্যেই প্রৌঢ়া সাবিত্রীদেবীর  সোলডার রিপ্লেসমেন্ট হল। অস্ত্রোপচার সফল হওয়ায় চিকিসসকদের পাশাপাশি খুশি প্রৌঢ়ার পরিবার সদস্যরাও।