সিপিটি অপারেশনে বড় সাফল্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের

389

রায়গঞ্জ: বড় সাফল্য পেল রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। ২৮ বছরের মেহেরুনা বেগম নামে এক গৃহবধূর কমপ্লিট পেরিনিয়াল টিয়ার (সিপিটি) অপারেশন করে সফল হন চিকিৎসকেরা। জানা গিয়েছে, গৃহবধূ মেহেরুনা বেগম সন্তান প্রসবের পর থেকে দীর্ঘদিন ধরে কষ্ট পাচ্ছিলেন। অনেক জায়গায় ছোটাছুটির পর ওই মহিলার আত্মীয়স্বজন প্রথমে তাঁকে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কিছু না হওয়ায় বিহারের পূর্ণিয়ার মেডিকেল কলেজে নিয়ে ভর্তি করেন তাঁরা। কিন্তু সেখানেও তাঁর অপারেশন হয়নি।

অবশেষে তাঁকে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক কে সি বন্দ্যোপাধ্যায় আজ ওই মহিলার অপারেশন করবেন বলে আত্মীয়দের জানিয়ে দেন। সেই অনুযায়ী এদিন সকাল ১১টায় অপারেশন শুরু হয়। টানা ৪৫ মিনিট অপারেশন চলে। অপারেশনের পর চিকিৎসক জানান, অপারেশন সফল হয়েছে। রোগী ভালো আছেন। প্রসবের সময় অনেক মহিলার পায়ুদ্বার পর্যন্ত ফেটে যায়। ওই মহিলার ক্ষেত্রে সেটাই হয়েছিল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এর ফলে শৌচকর্মের বেগ আসলে তা ধরে রাখা সম্ভব হচ্ছিল না। ফলে রাস্তাঘাটে চলাফেরা করতে খুবই অসুবিধা হত তাঁর। এদিন চিকিৎসক কে সি বন্দ্যোপাধ্যায়কে সহযোগিতা করেছেন অ্যানাস্থেসিস্ট ত্রিদীপ চৌধুরী এবং চিকিৎসক পবিত্র বিশ্বাস।

- Advertisement -