‘রাপুনজেল’ সিন্ড্রোমে আক্রান্ত কিশোরী, পেট থেকে মিলল চুলের বল

145

লন্ডন: নিজের চুল ছিঁড়ে খান! এবার এমন রোগের হদিস মিলল লন্ডনে। চিকিৎসকদের মতে এমন রোগ বিরলের মধ্যেও বিরলতম। নিজের চুল ছেঁড়ে, তারপর সেই চুলের গোছা নিজেই খেয়ে ফেললেন এক নাবালিকা। এমনই ভয়াবহ একটি রোগে আক্রান্ত লন্ডনের এক কিশোরী। পোশাকি ভাষায় এই রোগের নাম ‘রাপুনজেল’ ডিজিজ।

জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরেই ওই কিশোরীর পেটে মারাত্মক যন্ত্রণা হচ্ছিল। দু’সপ্তাহে আগে তা চরম আকার ধারণ করে। সম্প্রতি পরপর দু’বার সংজ্ঞা হারিয়েছিল সে। তখনই তাকে ভর্তি করা হয় নটিংহামের ক্যুইন’স মেডিক্যাল সেন্টারে। সেখানে ওই কিশোরীকে পরীক্ষা করে দেখেন চিকিৎসকরা। পরপর দু’বার অজ্ঞান হয়ে যাওয়ায় মাথায় প্রবল চোট পায় কিশোরীটি। এরপরই সিটি স্ক্যান করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। পাশাপাশি, ডাক্তাররা লক্ষ্য করেন, ওই কিশোরীর পেট স্বাভাবিক আকারের তুলনায় যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। এরপরই ডাক্তাররা তড়িঘড়ি কিশোরীর পেটের পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন। আর তাতেই চক্ষু চড়কগাছ ডাক্তারদের। চিকিৎসকরা দেখেন, কিশোরীর পেটের মধ্যে বিশালাকার একটি চুলের বল ঘোরাফেরা করছে। বলটি এতটাই বড় যে সেটি প্রায় গোটা পাকস্থলী দখল করে নিয়েছে।

- Advertisement -

এরপরেই জানা যায়, ওই কিশোরী ‘রাপুনজেল’ সিন্ড্রোমে আক্রান্ত। দু’টি বিরল অসুখ একসঙ্গে রয়েছে তাঁর শরীরে। নিজের মাথার চুল নিজেই ছেঁড়া, চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই রোগের নাম ‘ট্রাইকোফ্যাজিয়া’। এর পাশাপাশি ‘ট্রাইকোটিলোম্যানিয়া’ রোগেও আক্রান্ত সে। এই রোগে মানুষ চুল খেতে শুরু করে। চিকিৎসকরা বলছেন, ওই দুই রোগের সহাবস্থান খুবই বিরল একটা অবস্থা। যার শিকার ওই কিশোরী।

ইতিমধ্যে, নাবালিকার পেটের ৪৮ সেন্টিমিটারের চুলের বলটি অস্ত্রোপচার করে বের করে এনেছেন চিকিৎসকরা। পাশাপাশি ওই নাবালিকার মানসিক রোগের চিকিৎসাও চলছে। মনস্তত্ববিদদের পরামর্শ নেওয়ার পর এখন খানিকটা সুস্থ হয়েছে ওই নাবালিকা।