কোচবিহার, ১৩ জুন : একদিকে চিকিত্সকদের বিচার চেয়ে আন্দোলন। অন্যদিকে, চিকিত্সা বন্ধ থাকায় রোগীদের ত্রাহি পরিস্থিতি। বুধবার সারাদিন এই পরিস্থিতি থাকার পর শেষ পর্যন্ত কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে কর্মবিরতি তুলে নিলেন চিকিত্সকরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই এখানকার বহির্বিভাগ ছিল খোলা। রুটিন মেনে প্রতিটি চিকিৎসক এদিন উপস্থিত ছিলেন। এদিন সকাল থেকেই বহু রোগী ভিড় করেন পরিসেবা নেওয়ার জন্য।  নীলরতন সরকার মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের এক জুনিয়র চিকিৎসককে মারধর করার ঘটনায় গোটা রাজ্যের পাশাপাশি কোচবিহারেও বুধবার বহির্বিভাগ বন্ধ রেখে কর্মবিরতি পালন করেন চিকিৎসকরা। ফলে পরিসেবা না পেয়ে বুধবার নাজেহাল হতে হয় রোগীদের। ডাক্তার দেখাতে এসে ফিরে যেতে বাধ্য হন অনেকেই। অবশেষে বৃহস্পতিবার কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বহির্বিভাগ থেকে কর্মবিরতি তুলে নেওয়ায় সকাল থেকেই সেখানে পরিসেবা পেতে শুরু করেন রোগীরা। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এদিন হাসপাতালের সমস্ত পরিসেবা স্বাভাবিক রয়েছে।

-শিবশঙ্কর সূত্রধর, কোচবিহার