যোগীরাজ্যের হাসপাতালে কিশোরীর মৃতদেহ খুবলে খেল কুকুর

678

লখনউ: হাসপাতালে সিঁড়ির নীচে স্ট্রেচারে রয়েছে মৃতদেহ। ঢাকা রয়েছে সাদা চাদরে। আর সেই মৃতদেহই খুবলে খাওয়ার চেষ্টা করছে কুকুর। উত্তরপ্রদেশের সম্বলের সরকারি হাসপাতালে ঘটে যাওয়া এই ঘটনার ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার পথদুর্ঘটনায় জখম হয় এক কিশোরী। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলেও বাঁচানো যায়নি তাঁকে। সেই কিশোরীর বাবা চরণ সিংহ জানান, প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে হাসপাতালের স্ট্রেচারে ফেলে রাখা হয়েছিল মৃতদেহ। কেউই চিকিৎসায় এগিয়ে আসেনি। হাসপাতালের গাফিলতিতে এই ঘটনা ঘটেছে।

- Advertisement -

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রাস্তার কুকুর ঢুকে পড়ার ঘটনা স্বীকার করে নিলেও গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার করেছে। কর্তৃপক্ষের দাবি, রাস্তার কুকুর হাসপাতালে ঢুকে পড়ার সমস্যা দীর্ঘদিন থেকে রয়েছে। এবিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে জানালেও কোনও লাভ হয়নি। যদিও বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনার জন্য মৃতের পরিবারকেই দায়ী করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের চিকিৎসক সুশীল বর্মা জানান, এদিন করণীয় সব কিছু করার পর পরিবার ময়নাতদন্ত করতে না চাইলে দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরিবারের লোকেরাই সেই মৃতদেহ ফেলে রেখে কিছু সময়ের জন্য চলে গেলে এই ঘটনা ঘটে। তবে গাফিলতির অভিযোগে হাসপাতালের একজন সাফাইকর্মী ও একজন ওয়ার্ড বয়কে সাসপেন্ড করা হয়েছে। সমাজবাদী পার্টির তরফেও ভিডিওটি শেয়ার করে ঘটনার তীব্র নিন্দা করা হয়েছে ও উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে।