কৃষক খুনের ঘটনার তদন্ত করতে আনা হল পুলিশ কুকুর

312

ফাঁসিদেওয়া, ৫ ফেব্রুয়ারিঃ জমিতে ফসল তুলতে গিয়ে কৃষক খুন হওয়ার ঘটনায় পুলিশ কুকুর এনে তদন্ত করা হল। বুধবার সন্ধ্যা নাগাদ ফাঁসিদেওয়া ব্লকের গোয়ালটুলি মোড় সংলগ্ন এলাকায় কৃষকের গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার হয়। স্থানীয়দের দাবি, ফাঁসিদেওয়ার ভক্তিনগরের বাসিন্দা পেশায় কৃষকের বিনয় বসু (৪৩)কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে খুন করা হয়েছে। খবর পেয়ে সন্ধ্যায় ফাঁসিদেওয়া থানার ওসি সুজিত লামার নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে এসে, মৃতদেহ উদ্ধার করে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্যদিকে, এদিন রাতে বেলী নামে চার বছর বয়সী পুলিশ কুকুর এনে তল্লাশি চালানো হয়েছে। ডিএসপি (গ্রামীণ) অচিন্ত্য গুপ্ত জানিয়েছেন, একটি খুনের মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

নকশালবাড়ির সার্কেল ইনস্পেক্টর স্বপন সরকার রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে জানিয়েছেন, মৃতের শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার ক্ষত রয়েছে। দুষ্কৃতীরা ঘটনাস্থল থেকে বেরিয়ে বাইক বা গাড়ি নিয়ে পালিয়ে গিয়েছে। অভিযুক্তদের খুব শীঘ্রই গ্রেফতার করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদী। অপরদিকে, স্থানীয়দের তরফে জানা গিয়েছে, এলাকায় বিনয় বাবুর সকলের সঙ্গে সুসম্পর্ক ছিল। কেন ওই কৃষককে খুন হতে হল, তা নিয়ে মৃতের পরিবারের সদস্যরা এবং স্থানীয় বাসিন্দারা সঠিক তদন্তের দাবি করেছেন।