১০ বছর ধরে আয়কর দেননি ডোনাল্ড ট্রাম্প!

349

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আসন্ন। এরই মধ্যে বড়সড় বোমা পাঠাল প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস। ২০১৬ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ২০১৬ ও ২০১৭-তে মাত্র ৭৫০ ডলার করে আয়কর দিয়েছিলেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছর কোনও আয়করই দেননি বলেও অভিযোগ উঠেছে।

তবে ট্রাম্প যথারীতি তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি আয়কর দিয়েছি। সেটা নিয়ে অডিটও হচ্ছে। দীর্ঘসময় ধরে অডিট হয়েই চলেছে।’ পাশাপাশি ট্রাম্প পালটা অভিযোগ তুলেছেন আমেরিকার কেন্দ্রীয় সরকারের আয়কর পরিষেবা প্রতিষ্ঠান ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিসকে (আইআরএস)-এর ঘাড়ে। তিনি বলেছেন, ‘কর কর্তৃপক্ষ আমার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করছে না। তারা আমার সঙ্গে খুবই খারাপ ব্যবহার করছে।’

- Advertisement -

তবে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, তাদের কাছে এমন সব নথিপত্র রয়েছে, যা থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, ট্রাম্প কর দেননি। পত্রিকাটির দাবি, ট্রাম্প এবং তাঁর বিভিন্ন কোম্পানির দুই দশকের বেশি সময়ের কর দেওয়ার রেকর্ড তাদের হাতে এসেছে। ট্রাম্প তার আয়কর রিটার্ন প্রকাশ করেননি বলেও অভিযোগ উঠেছে। ১৯৭০ সালের পর থেকে তিনিই প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট যিনি আয়করের রিটার্ন প্রকাশ করলেন না। বিষয়টি বাধ্যতামূলক না হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্টরা স্বচ্ছ ভাবমূর্তিকে তুলে ধরতে আয়কর রিটার্ন প্রকাশ করে থাকেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের রিপোর্টও বলছে, ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিসের সঙ্গে ট্রাম্পের এক দশক ধরে বিরোধ চলছে। ট্রাম্প তাঁর বিশাল ক্ষতি দেখিয়ে ৭ কোটি ২৯ লক্ষ ডলারের ট্যাক্স রিফান্ড দাবি করেছেন। মূলত সেই বিষয় নিয়েই বিরোধ চলছে। ট্রাম্প ও তার কোম্পানিগুলির গত দুই দশকের আয়কর রিটার্নের তথ্য তাদের হাতে এসেছে বলে দাবি করেছে এই মার্কিন সংবাদমাধ্যম। যা থেকে নানা প্রশ্ন উঠে এসেছে। ব্যবসায়ে ক্ষতি দেখিয়ে ট্যাক্স রিফান্ড চাইলেও ট্রাম্প প্রচুর সম্পদের মালিক। ২০১৮ সালে তিনি অন্তত ৪৩৪.৯ মিলিয়ন ডলার আয় করেছেন।