ডুয়ার্স ব্যুরো, ২৫ জুন : সোমবার রাত থেকে লাগাতার বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত মাল মহকুমার নাগরাকাটা ব্লক সহ ডুয়ার্সের বেশকিছু এলাকা। ব্লকের গ্লাসমোড় হয়ে ছাড়তন্ডু গ্রামে যাওয়ার প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার রাস্তার প্রায় ৫০মিটার উড়ে গিয়েছে গাঠিয়া নদীর স্রোতে। ফলে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ওই গ্রামের প্রায় হাজার পাঁচেক বাসিন্দা। নাগরাকাটা সদর ব্লকেই মনমোহন ঝোরার ভাঙনে স্থানীয় মনমোহন শিশু শিক্ষা কেন্দ্র নদীগর্ভে তলিয়ে গিয়েছে। গ্রামে প্রবেশের পথে একটি সেতুও নদী ভাঙনের কবলে। এছাড়া আংরাভাসা- ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের খেরকাটা এলাকায় ডায়না নদীর বাঁধে ভাঙন শুরু হয়েছে।  রাত থেকে ,সকাল পর্যন্ত ভারী বৃষ্টি  প্রবল জলোচ্ছ্বাস দেখা দিয়েছে ব্লকের সবকটি নদীতে। প্রবল বৃষ্টিতে ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় বেশ কয়েকটি বসতবাড়িও তলিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে।পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হয়েছে ব্লক প্রশাসনের তরফে।

পরিস্থিতি খারাপ হতে শুরু করেছিল বানারহাট ব্লকেও। হাতিনালার জল ঢুকতে শুরু করে কিছু এলাকায়। তবে, বেলার দিকে জল নামতে শুরু করলে বানারহাটের বাসিন্দারা হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন।একইভাবে ভোলানালার জল ঢুকেছে আলিপুরদুয়ারের পুরোনো হাসিমারায়। হাসিমারা বাসস্ট্যান্ডে হাঁটুসমান জল দাঁড়িয়ে।

ছবি- তলিয়ে যাচ্ছে মনমোহন শিশু শিক্ষা কেন্দ্র।