বর্হিবাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনের পরিকাঠামো উন্নয়নে আশ্বাস রেলকর্তার

160

চ্যাংরাবান্ধা: চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনে পরিকাঠামোগত সমস্যা খতিয়ে দেখে সমাধানের আশ্বাস দিলেন আলিপুরদুয়ারের ডিআরএম এস কে জৈন। শনিবার চ্যাংরাবান্ধা রেল স্টেশন পরিদর্শনে এলে রপ্তানি ব্যবসায়ী সংগঠনের তরফে তাঁর সঙ্গে দেখা করে বিভিন্ন দাবিদাওয়া তুলে ধরা হয়। চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনে পদাতিক এক্সপ্রেসের স্টপেজের দাবিও জানানো হয়েছে ডিআরএমের কাছে। এদিন ডিআরএম প্রথমে নিউ চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনে আসেন। এরপর চ্যাংরাবান্ধা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে যান। সেখান থেকে যান স্থানীয় বিএসএফ ক্যাম্পেও। চ্যাংরাবান্ধা স্টেশন ঘুরে দেখে বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়ার পর তিনি আন্তর্জাতিক তিনবিঘা করোডর পরিদর্শন করেন।

জানা গিয়েছে, বাংলাদেশে রপ্তানির উদ্দেশ্যে বর্তমানে চ্যাংরাবান্ধা সীমান্তে রেলপথেও বাইরে থেকে পণ্য নিয়ে আসা হচ্ছে। রেলপথে পণ্য চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনে পৌঁছোনোর পর সেগুলি ট্রাকে করে বাংলাদেশে পাঠানো হচ্ছে। কিন্তু এই স্টেশনে পরিকাঠামোগত বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। এইসমস্ত বিষয়ে খোঁজখবর নেন ডিআরএম। এদিন সকাল থেকেই চ্যাংরাবান্ধা ও নিউ চ্যাংরাবান্ধা স্টেশনে রেল কর্মীদের তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। এদিন বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে চ্যাংরাবান্ধা এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুলচাঁদ বুচ্চা, উত্তম সরকার প্রমুখ ডিআরএমের সঙ্গে কথা বলেন। এই বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ করার কথা জানিয়েছেন এস কে জৈন।

- Advertisement -