খরচের হিসাব দিতে হবে সরকারকে, পুজোয় সরকারি অনুদান মামলায় নির্দেশ আদালতের

0
337
- Advertisement -

কলকাতা: রাজ্যের দেওয়া ৫০,০০০ টাকা অনুদান কোথায় খরচ হল তার হিসাব দিতে হবে। জেলা প্রশাসনের কর্তাদের দিতে হবে এই হিসাব। সেই হিসাবের রিপোর্ট জমা পড়বে আদালতে। শুধু তাই নয়, ওই অনুদানের টাকা ক্লাব বা পুজো কমিটি গুলি আলঙ্কারিক কোনও খরচে ব্যবহার করতে পারবে না। পুলিশ-জনতা সমণ্বয় এবং করোনা মোকাবিলার কাজেই ব্যবহার করতে হবে। অন্তর্বর্তী রায়ে শুক্রবার একথা জানিয়ে দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ দিন ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছে, ক্লাবগুলি সরকারের কাছ থেকে পাওয়া ৫০ হাজার টাকার ২৫ শতাংশ পুলিশ-জনগণ সমন্বয়ের জন্য খরচ করবে। বাকি ৭৫ শতাংশ খরচ করতে হবে কোভিড মোকাবিলার জন্য স্যানিটাইজার এবং মাস্ক কিনে দর্শনার্থীদের দেওয়ার জন্য।

এ দিন দুই বিচারপতি বলেন, ‘অনুদান ঘোষণার সময় মুখ্যমন্ত্রী যা বলেছিলেন, আর সরকারের তরফে প্রকাশিত নির্দেশিকায় যা রয়েছে তাতে কোনও মিল নেই। সমস্ত রাজনৈতিক দল মিলে আমলাতন্ত্রের মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে। নইলে এরকম হয় না। আমলারা রাজনীতিবিদদের থেকে বিচারবুদ্ধিতে অনেক এগিয়ে।’

ডিভিশন বেঞ্চের দুই বিচারপতি এ দিন বলেন, কী ভাবে ক্লাবগুলোকে টাকা দেওয়া হচ্ছে তারও বিস্তারিত হিসাব রাখা প্রয়োজন। মহকুমা শাসকদের এই দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে। ডিভিশন বেঞ্চ লক্ষ্মীপুজোর পর এই মামলা ফের শুনবে এবং চূড়ান্ত রায় দেবে বলে জানিয়েছেন দুই বিচারপতি।

- Advertisement -