তরুণ ভোটারদের ই-এপিক কার্ড ব্যবহারের প্রচারে জোর প্রশাসনের

135

সোনাপুর: বিধানসভা ভোটের মুখে নির্বাচন কমিশনের নতুন উদ্যোগ ই-এপিক কার্ড। তথাকথিত কাগজের স্বচিত্র পরিচয়পত্র দেখিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করার রীতি থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছে নির্বাচন কমিশন। সেই জন্য ডিজিটাল যুগের সঙ্গেই তাল মিলিয়ে তারা চালু করেছে ই-এপিক কার্ড (ইলেক্ট্রনিক ইলেক্টোরাল ফোটো আইডেন্টিটি কার্ড)। মঙ্গলবার আলিপুরদুয়ার-১ ব্লক প্রশাসনের তরফে বিভিন্ন জায়গায় ক্যাম্প করে যুব সমাজকে এই কার্ডই ব্যবহার করার জন্য প্রচার চালানো হয়।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এবছরের যাঁরা নতুন ভোটার তাঁরা এই সুবিধা পাবেন। এই সুবিধায় ভোটাধিকার প্রয়োগ করার জন্য কাগজের কোনও পরিচয়পত্র দরকার পড়বে না। নির্বাচন কমিশনের নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে এই ই-এপিক কার্ড ডাউনলোড করা যাবে। সেটা দিয়েই নতুন ভোটাররা নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। এই সুবিধা পাওয়ার জন্য এনভিএস পোর্টাল বা ভোটার হেল্পলাইন অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। সেখান থেকেই নিজেদের মোবাইল নম্বর দিয়ে লগ ইন করে এই সুবিধা পাওয়া যাবে। কোন বুথে ক’জন নতুন ভোটার এই সুবিধা পাবেন, সেই তালিকা ইতিমধ্যেই জেলা প্রশাসন থেকে ব্লক প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ব্লক প্রশাসন থেকে এই তালিকা সমস্ত বুথ লেভেল অফিসার (বিএলও)-দের জানিয়ে দেওয়া হবে।

- Advertisement -

আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের বিডিও শ্রেয়সী ঘোষ বলেন, ‘নতুন ভোটার যাঁরা ভোটার কার্ড পাননি তাঁরা খুব সহজেই অনলাইনে এই কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। নতুন ভোটারদের এই বিষয়ে উৎসাহ দেওয়ার জন্য আমরা বিভিন্ন জায়গায় ক্যাম্প করছি।’