শীতলকুচির ঘটনায় ফের নির্বাচন কমিশনকে আক্রমণ মমতার

70

কলকাতা: শীতলকুচি কাণ্ডের পর কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ৭২ ঘণ্টায় রাজনৈতিক নেতাদের কোচবিহারে ঢোকায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে কমিশনের তরফে। এদিকে, রবিবারই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শীতলকুচি যাওয়ার কথা থাকলেও রাতেই তাঁকে সফর বাতিল করতে হয়েছে। কিন্তু এভাবে যে তাঁকে আটকে রাখা যাবে না, রবিবার টুইটে নির্বাচন কমিশনকে আক্রমণ করে তা  জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।

- Advertisement -

এদিন টুইটে তিনি লেখেন, ‘ নির্বাচন কমিশনের উচিৎ মডেল কোড অফ কনডাক্টের নাম মোদি কোড অফ কনডাক্ট করে দেওয়া। বিজেপি এদের সবাইকে ব্যবহার করতে পারে। কিন্তু গোটা বিশ্বে এমন কোনও ক্ষমতা নেই যা আমাকে মানুষের যন্ত্রণা ভাগ করে নেওয়া থেকে আটকাবে। আমার ভাই-বোনেদের দেখার থেকে ওরা আমায় তিনদিন আটকাবে। কিন্তু আমি চতুর্থ দিনই কোচবিহারে পৌঁছে যাব।’

প্রসঙ্গত, চতুর্থ দফার ভোটে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল কোচবিহার জেলার শীতলকুচি। শনিবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে শীতলকুচির জোরপাটকি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৫/১২৬ নম্বর বুথে ৪ জনের মৃত্যু হয়। মৃত হামিদুল মিয়াঁ, সামিউল হক, মণিরুল হক এবং আমজাদ হোসেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থক বলে দাবি ঘাসফুল শিবিরের। ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছে তৃণমূল।