সাসপেন্ড হতেই গোঁজ প্রার্থী হিসেবে ভোটে দাঁড়ালেন বিজেপি নেতা

212

বর্ধমান: বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভায় বিজেপির গোঁজ প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিলেন সাসপেন্ড হওয়া বিজেপি নেতা স্মৃতিকান্ত মণ্ডল। সোমবার তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন। বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী তথা প্রক্তন পূর্ব বর্ধমান জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দিই যে তাঁর মূল প্রতিপক্ষ তা এদিন ইঙ্গিতেই বুঝিয়ে দিয়েছেন স্মৃতিকান্তবাবু। যদিও স্মৃতিকান্তবাবুর মনোনয়ন দাখিল করার বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে চাননি সন্দীপ নন্দি।

মনোনয়ন দাখিল শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে স্মৃতিকান্ত মণ্ডল জানান, তিনি মনেপ্রাণে বিজেপির সৈনিক। তাই নিজের বিধানসভা আউশগ্রামে তিনি বিজেপি প্রার্থী কলিতা মাঝির হয়ে প্রচার করছেন। কিন্তু বিজেপির সৈনিক হয়েও তাঁর মূল লড়াইটা বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী তথা বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দীর বিরুদ্ধে। সেই কারণে তিনি সন্দীপ নন্দির বিরুদ্ধে লড়ার জন্যই এদিন নির্দল প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। হুংকারের সুরে স্মৃতিকান্তবাবু এদিন দাবি করেন, প্রার্থী হিসেবে বর্ধমান দক্ষিণের বিজেপি প্রার্থী অযোগ্য। তাই তার প্রতিবাদস্বরূপ তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

- Advertisement -

বিজেপি প্রার্থী সন্দীপ নন্দি যদিও স্মৃতিকান্তবাবুর এইসব বক্তব্য নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি। তিনি শুধু বলেন, ‘বিষয়টি জেলার সাংগঠনিক নেতৃত্ব এবং রাজ্য নেতৃত্ব দেখছেন।’ বর্ধমানের রাজনৈতিক মহল সূত্রে খবর, কয়েক মাস আগে জেলা বিজেপি শিবিরের অন্দরে বিরোধ চরমে ওঠে। তার জেরে বর্ধমানের জেলা বিজেপি পার্টি অফিসে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় স্মৃতিকান্ত মণ্ডলকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। তাঁকে কয়েকদিন জেলও খাটতে হয়। এই ঘটনার পর রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব সন্দীপ নন্দিকে জেলা বিজেপি সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে অভিজিৎ তা’কে জেলা সভাপতি পদে মনোনিত করেন। পাশাপাশি রাজ্য নেতৃত্ব স্মৃতিকান্ত মণ্ডলকে সাসপেন্ড করেন। এরপরে আবার দলের নেতৃত্ব সন্দীপ নন্দিকেই বর্ধমান দক্ষিণ বিধানসভা আসনে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে টিকিট দেন। রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, এটা মেনে নিতে না পেরেই স্মৃতিকান্ত মণ্ডল এদিন বিজেপি প্রার্থী সন্দীপ নন্দির গোঁজ প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন জমা দেন।