রাত পোহালেই ভোট, আটোসাটো নিরাপত্তা ব্যবস্থা গাজোলে

51

গাজোল: রাত পোহালেই ভোট। সকাল হতেই ভোটের লাইনে দাঁড়াবেন ভোটাররা। তবে সম্ভবত এবার আর উৎসবের মেজাজে নয়, করোনা আবহে কিছুটা ভয় নিয়েই ভোট দিতে যাবেন ভোটাররা। ভোট পর্ব যাতে শান্তিতে সমাপ্ত হয় তার জন্য একাধিক পদক্ষেপ করেছে নির্বাচন কমিশন। বিশেষ করে ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে মেনে চলতে হবে কঠিন স্বাস্থ্যবিধি। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের প্রবেশের আগেই আশা কর্মীরা প্রত্যেক ভোটদাতার শারীরিক তাপমাত্রা পরীক্ষা করবেন।

এবার এই কেন্দ্রে মোট ভোটারের সংখ্যা ২,৬৬,৮৮৭ জন। যার মধ্যে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ১,৩৪,৫৬৪। মহিলা ভোটারের সংখ্যা ১,৩২,৩১৮ এবং তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ৫ জন। মেইন বুথ ২৪৮, অক্সিলারি বুথ ১৩৪টি। সব মিলিয়ে বুথের সংখ্যা ৩৮২। স্পর্শ কাতর বুথ রয়েছে ৫৩টি। গোটা বিধানসভা কেন্দ্রকে ভাগ করা হয়েছে ২৪টি সেক্টরে। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি রাজ্য পুলিশও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছে। এছাড়াও পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে রুটমার্চ করে উত্তেজনা প্রবণ এলাকাগুলির “এরিয়া ডমিনেশন” এর কাজ করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানেরা। ভোটের জন্য গাজোলে এসে পৌঁছেছে ২৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। গতকালই বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে ওই সমস্ত জায়গায় তথ্য সংগ্রহ করেছেন তারা। পাশাপাশি থাকছে কুইক রেসপন্স টিম এবং ফ্লাইং স্কোয়াড। প্রত্যেকটি ভোটার যাতে নির্ভয়ে ভোট দিতে পারেন তার জন্য প্রচার চালিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের তরফ থেকে প্রত্যেক ভোটারের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ভোটার স্লিপ। এখন দেখার উৎসবের মেজাজ থেকে সরে গিয়ে নতুন অভিজ্ঞতাকে সঙ্গে নিয়ে কিভাবে ভোটাররা ভোটের লাইনে গিয়ে দাঁড়াচ্ছেন।

- Advertisement -