Election Live Updates: দক্ষিণে বিক্ষিপ্ত অশান্তি, উত্তরে শান্তিতেই চলছে ভোটগ্রহণ

119

নিউজ ব্যুরো: কড়া নিরাপত্তার চাদরে রাজ্যে শুরু হয়েছে ষষ্ঠ দফার ভোটগ্রহণ। বহস্পতিবার ষষ্ঠ দফায় ৪ জেলার ৪৩টি বিধানসভা আসনে ভোট হচ্ছে। এদিন উত্তর দিনাজপুরের ৯টি, উত্তর ২৪ পরগণার ১৭টি, নদিয়ার ৯টি ও পূর্ব বর্ধমানের ৮টি আসনে ভোট হচ্ছে। কোভিড বিধি মেনে ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে ঢোকানো হচ্ছে। সকাল থেকেই ভোট কেন্দ্রের বাইরে ভোটারদের লম্বা লাইন চোখে পড়েছে। এদিন উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ, চাকুলিয়া, করণদিঘি, হেমতাবাদ, কালিয়াগঞ্জ, চোপড়া, ইসলামপুর, গোয়ালপোখর ও ইটাহার আসনে ভোট হচ্ছে।

  • চোপড়া থানার খুনিয়া গ্রামে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে একদল দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। ভোটের ঠিক আগে আতঙ্ক ছড়াতেই বুধবার রাতে গুলি চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ বাসিন্দাদের। ঘটনাকে ঘিরে আতঙ্কিত গোটা গ্রাম।
  • রায়গঞ্জ করোনেশন হাইস্কুলে বৃহস্পতিবার সকাল ৭.৩০টায় ভোট দেন বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণী। এই কেন্দ্রে পরিদর্শনে আসেন তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল।
  • রায়গঞ্জ পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের স্বদেশ রঞ্জন স্মৃতি ভবনের ১৩২ নম্বর বুথে সকাল ৭টা ৪৫ মিনিট নাগাদ ইভিএমে গোলযোগ দেখা দেওয়ায় ভোটগ্রহণ বন্ধ থাকে। ৮টা নাগাদ নতুন ইভিএম আসার পর ফের ভোট শুরু হয়। সেখানে সকাল থেকেই ভোটারদের লম্বা দেখা গিয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে ভোট চলছে।
  • সকাল ৮টায় সংযুক্ত মোর্চা মনোনীত প্রার্থী মোহিত সেনগুপ্ত রায়গঞ্জ পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের স্বদেশ রঞ্জন স্মৃতি ভবনের ১৩২ নম্বর বুথে ভোট দিতে আসেন।
  • এবারের নির্বাচনে রায়গঞ্জ করোনেশন হাইস্কুল হল মডেল ভোটকেন্দ্র। তাই এই কেন্দ্রকে ঘিরে যথেষ্ট উৎসাহ চোখে পড়েছে।
  • উত্তর দিনাজপুরের ইটাহার বিধানসভা কেন্দ্রের ২০৯ নম্বর বুথে ভিভিপ্যাটের ওপর বিজেপির ট্যাগ পাওয়া গিয়েছে বলে অভিযোগ।
  • রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের ১২১ নম্বর বুথে ভিভিপ্যাটের ওপর বিজেপির ট্যাগ লাগানো রয়েছে বলে অভিযোগ তুলছেন ভোটাররা।
  • পূর্ব বর্ধমানের গলসি থানার মনোহর সুজাপুর ২১৩ এবং ১৪ নম্বর বুথে ভোটারদের ভোট দিতে যেতে দেয়নি তৃণমূল। পাশাপাশি বিজেপির এক কর্মীকেও মারধর করা হয়েছে। এমনই অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। অন্যদিকে, ভোটাররা জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী ব্যবস্থা না নিলে তাঁরা কেউ ভোট দিতে যাবেন না।
  • পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম প্রতাপপুরের ডাঙ্গাপাড়া হাইস্কুলের বুথের সামনে জমায়েত সরাতে গেলে পুলিশকে বাধা দেন ভাল্কি অঞ্চলের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অরূপ মিদ্যা। অরূপবাবু পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘শীতলকুচি করতে যাবেন না। তিনদিন পর আমাদের সরকার ক্ষমতায় আসবে।’ এদিন ১৫৩ নম্বর বুথের সামনে জমায়েত ছিল। পুলিশ জমায়েত সরাতে গেলে সেসময় তৃণমূল নেতা অরূপ মিদ্যা পুলিশের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন।
  • বৃহস্পতিবার সকালে কালিয়াগঞ্জের জিএসএফপি স্কুলের ৮০ নম্বর বুথে ভোট দেন দীপা দাশমুন্সি।
  • বুথের ১০০ মিটারের মধ্যে প্রার্থীর দেওয়াল লিখন থাকার অভিযোগ উঠেছে রায়গঞ্জের ১৬২, ১৬৩, ১৬৪, ১৬৫ নম্বর বুথে। অভিযোগ পাওয়ার পরই অবশ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে দেওয়াল লিখন মুছে ফেলা হয়।
  • কেতুগ্রামের রাজুর গ্রামে ১০১ নম্বর বুথে বোমাবাজি।
  • চোপড়ার মাঝিয়ালী গ্রাম পঞ্চায়েতের বকনাবন্ধা ৫৫ বুথে প্রিসাইডিং অফিসারকে বদল করা হল। প্রিসাইডিং অফিসারের অসুস্থতার কারণে ভোটদানের গতি কমে গিয়েছিল। সেই কারণেই সম্ভবত তাঁকে বদল করা হয় বলে সূত্রের খবর। বৃহস্পতিবার সকালে মহম্মদ আজহার আলি মিয়াঁ নামে অন্য একজনকে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

    - Advertisement -

    অন্যদিকে, ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ভিতরে জয় শ্রীরাম স্লোগান দেওয়ার অভিযোগে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে সরিয়ে দেওয়া হল থার্ড পোলিং অফিসার অর্কজিৎ ভট্টাচার্যকে। বৃহস্পতিবার ষষ্ঠ দফার ভোটে ঘটনাটি ঘটেছে পূর্বস্থলী দক্ষিণ বিধানসভার দোল গোবিন্দপুর জিএসপি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩৫ নম্বর বুথে।