হলদিবাড়ি চা বাগানে হাতির তাণ্ডব

137

বিন্নাগুড়ি: গভীর রাতে চা বাগানে হাতির তাণ্ডব। সোমবার বিন্নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হলদিবাড়ি চা বাগানের মণিপুর লাইনে ঢুকে পড়ল দলছুট একটি হাতি। খাবারের লোভে হাতিটি মোরাঘাট জঙ্গল থেকে বেরিয়ে এই এলাকায় ঢুকে গুঁড়িয়ে দেয় ৭টি বাড়ি ও ২টি দোকান। সেই সঙ্গে ফেরার সময় হাতিটি চা মালিক সংগঠন ডিবিআইটিএ-র দপ্তরের সীমানা প্রাচীরের কিছুটা অংশও ভেঙে ফেলে।

স্থানীয় সুত্রে খবর, গভীর রাতে দলছুট একটি হাতি যখন তাণ্ডব শুরু করে সেই সময় একটি দোকানে ঘুমিয়ে ছিলেন মালিক রাজু ওরাওঁ। হাতিটি দোকানের দেওয়াল ভেঙে সেখানে রাখা কিছু জিনিস খাওয়ার চেষ্টা করে। হাতির আওয়াজ পেয়ে কোনক্রমে পালিয়ে প্রাণে বাঁচেন দোকান মালিক। এরপর সাতটি বাড়িতে ভাঙচুর চালায় হাতিটি। এদিন বাগানের শ্রমিকরা নিজেরাই ট্র্যাক্টর নিয়ে হাতিটিকে তাড়িয়ে জঙ্গলে ফেরত পাঠান। তবে ফেরার সময় ডিবিআইটিএ-র সীমানা প্রাচীরের কিছুটা অংশও ভেঙে ফেলে হাতিটি। স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের অভিযোগ, বন দপ্তর এর কাছে ক্ষতিপূরণের আবেদন জানিয়েও তা পেতে অনেক সময় লেগে যায়। অনেকসময় তা পাওয়াও যায়না। এমনকি বাগানে হাতি ঢুকে পড়ার খবর বন দপ্তরকে জানানো হলেও তারা দেরিতে আসেন বলেও অভিযোগ করেন শ্রমিকেরা।

- Advertisement -

বিন্নাগুড়ি বন্যপ্রাণ বিভাগের রেঞ্জার শুভাশিস রায় জানান, সম্ভবত পাশেই অবস্থিত মোরাঘাট জঙ্গলে ফেরার পথে খাবারের খোঁজে হাতিটি শ্রমিক লাইনে ঢুকে যায়। যদি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা নির্দিষ্ট রেঞ্জে বন দপ্তরের নিয়ম অনুযায়ী আবেদন করেন, ক্ষতিপূরণের বিষয়টি দেখা হবে।