সাঁতালি বাগানে দাঁতালের তান্ডব

112
হাতির হানায় ক্ষতিগ্রস্ত ঘর।

হাসিমারা: শনিবার গভীর রাতে হাসিমারা পুলিশ ফাঁড়ির অধীন সাঁতালি চা বাগানের শ্রমিক মহল্লায় তাণ্ডব চালায় একটি দাঁতাল। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রাত ১২ টা নাগাদ বাগান লাগোয়া বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের ভার্ণাবাড়ি বিটের জঙ্গল থেকে একটি বিশালাকার দাঁতাল বাগানের গেন্দ্রে লাইনে ঢুকে পড়ে। সেখানে পাঁচটি শ্রমিক আবাসন ভেঙ্গে দাঁতালটি পাশের চন্দা লাইনে হামলা চালায়। চন্দা লাইনে দাঁতালের হানায় তিনটি শ্রমিক আবাসন ভেঙ্গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাগানের শ্রমিক মমতা দোরজি, আর্থারটন কুজুর, চন্দু বেক, প্রমিলা বরুয়া, হিরা মিঞ্জ, মহাবীর লোহার, লক্ষ্মী মিঞ্জ ও নিরান্তক লাকড়ার পাকা আবাসন ভেঙ্গে দাঁতালটি খাদ‍্য সামগ্ৰী খেয়ে ফেলে।

- Advertisement -

শ্রমিকদের অভিযোগ, প্রায় দু’ঘন্টা ধরে তাণ্ডব চালালেও বনকর্মীরা না আসায় দাঁতালের হামলায় ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে। দাঁতালের ভয়ে অনেক শ্রমিক বাড়ির বাইরেই রাত কাটান।

বাগানের গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য বরুন কুজুর জানান, সঠিক সময়ে বনকর্মীরা পৌঁছালে এতটা ক্ষতি হত না। ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকরা ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়েছেন।

হ‍্যামিল্টনগঞ্জের রেঞ্জ অফিসার অমলেন্দু মাঝি জানান, হাতি বাগানে ঢোকার কিছুক্ষণ আগেই বনকর্মীরা ওই এলাকায় টহল দিয়ে যান। সেখান থেকে বনকর্মীরা অন‍্য এলাকায় চলে যাওয়ার পর হাতিটি এলাকায় হামলা চালায়। তাই বনকর্মীরা কিছুটা দেরিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তবে রবিবার সকালে তিনি নিজে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িগুলি দেখে এসেছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের আবেদনপত্র দেওয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তরা সরকারি নিয়মে ক্ষতিপূরণের টাকা পাবেন বলে রেঞ্জার আশ্বস্ত করেছেন।