সীমান্ত গ্রামে হাতির তাণ্ডব, ফসল-বাড়িঘরের ক্ষতি

51

কিশনগঞ্জ: নেপাল সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় হাতির তাণ্ডব। ক্ষতিগ্রস্ত বেশকিছু ঘরবাড়ি। জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে সংলগ্ন জঙ্গল থেকে হাতির দল বেরিয়ে কিশনগঞ্জের দিঘলব্যাংক এলাকায় পিঁপলা গ্রামে হানা দেয়। সেখানে বেশকিছু কুঁড়েঘর ভেঙে তছনছ করে। নষ্ট করে দেয় ধান, ভুট্টা, সবজি, কলার খেতও। তাণ্ডব চালিয়ে ভোরের দিকে আবার জঙ্গলে ফিরে যায় হাতির দলটি।

এনিয়ে গত ১৪ দিনে ৬ বার নেপাল থেকে আসা হাতির দল সীমান্তের গ্রামাঞ্চলে তাণ্ডব চালিয়েছে বলে দাবি করেন বাহাদুরগঞ্জের প্রাক্তন বিধায়ক অবোধ বিহারী সিংহ। তিনি জানান, রবিবার রাতে নেপালের দিক থেকে আসা হাতির দলটি মাঝরাতে কনকই নদী পার করে ধনটোলায় বেশকিছু কুঁড়েঘর ভেঙে দেয়। ঘরে মজুত খাবার সাবাড় করে। এরপরই পাশের পিঁপলা গ্রামের একটি বাড়িতে হামলা চালায় হাতির দলটি।

- Advertisement -

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে হাতির হামলায় আতঙ্কে রয়েছেন কিশনগঞ্জের দিঘলব্যাংক সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা। রাত জেগে এলাকায় পাহারা দিচ্ছেন তাঁরা। যদিও বারবার এই হাতির হানার বিষয়টি সরজমিনে খতিয়ে দেখছে বন দপ্তর। জেলার বন আধিকারিক সত্যেন্দ্র পাসওয়ান জানান, রাতে হাতির হানা থেকে রক্ষার জন্য বনকর্মীরা গ্রামের বাসিন্দাদের নানাভাবে সচেতন করছেন। জেলা বন দপ্তরের রেঞ্জার উমা শঙ্কর দুবে জানান, বিডিও হাতির হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা বন দপ্তরকে পাঠালেই এই বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দেওয়া হবে ক্ষতিপূরণও।