বিরোধী বাধা সরিয়ে এগারো মাস পর পঞ্চায়েতে পা রাখলেন প্রধান

76

চোপড়া: অবশেষে এগারো মাস পর গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ে পা রাখলেন প্রধান। সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে খোলা হল লক্ষ্মীপুর গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে বিরোধীশূন্য লক্ষ্মীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে তৃণমূল কংগ্রেস বোর্ড গঠনের পর থেকেই এখানে অচলাবস্থা চলতে থাকে। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগে সরব হয় বিরোধী শিবির। অভিযোগ, প্রধান, উপপ্রধান, নির্বাচিত সদস্যদের এমনকি অফিসের কর্মচারীদের পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে কার্যালয়ে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়। পরে প্রশাসনিক মধ্যস্থতায় কংগ্রেসের সঙ্গে সমন্বয় কমিটি তৈরি করে কয়েক মাস গ্রাম পঞ্চায়েতের কাজ চলে। এরপর কাজকর্মে অনিয়মের অভিযোগে ফের গত বছর ২১ জুলাইয়ের পর থেকে অচলাবস্থা তৈরি হয়। জানা গিয়েছে, প্রধান আব্দুল রাজ্জাক নিজের গ্রামে অস্থায়ীভাবে ঘর ভাড়া নিয়ে প্রশাসনিক কাজকর্ম চালাতেন।

প্রায় এক বছর পর এদিন গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয় চালু হল। গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী শিবিরের একটা বড় অংশ তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় এখানে বিরোধীরা কার্যত দুর্বল হয়ে পরে বলে স্থানীয় রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা। স্থানীয় বাসিন্দা জেলা পরিষদ সদস্য তৃণমূল নেতা আজিজ আহমেদ জানান, এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে সবার সঙ্গে আলোচনা করেই গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয় খুলল। অন্যদিকে বিরোধী নেতা কংগ্রেসের অঞ্চল সভাপতি শহীদুল ইসলাম জানান, গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূল কারচুপি করে জেতায় তাঁরা আইনি লড়াইয়ের পথ বেছে নিয়েছিলেন। সেটা এখনও জারি রয়েছে।

- Advertisement -