মোবাইল ঝাঁকালেই যাবে এসএমএস, মহিলাদের সুরক্ষায় অর্কপ্রভর অ্যাপ

775
নিজের তৈরি অ্যাপ দেখাচ্ছেন অর্কপ্রভ দাস

সৌরভ দেব, জলপাইগুড়ি : বিপদে পড়লে তিনবার জোরে হাতে থাকা স্মার্টফোনটি ঝাঁকালে এসএমএস চলে যাবে পুলিশের কাছে। একইভাবে এসএমএস চলে যাবে পরিজনদের কাছেও। এসএমএসে থাকা লিংক খুললেই বিপদগ্রস্ত ব্যক্তির লাইভ লোকেশন দেখতে পাবে পুলিশ বা পরিজনরা। জলপাইগুড়ি সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র অর্কপ্রভ দাস এমনই এক মোবাইল অ্যাপ তৈরি করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন। অর্কপ্রভ অ্যাপটির নাম দিয়েছেন সুরক্ষা। শুধু মোবাইল ফোন ঝাঁকালেই সাহায্য মিলবে তা নয়, দুষ্কৃতীরা যদি কোনওভাবে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়, তবে ওই অ্যাপ চালু থাকলে তিনবার হেল্প বলে চিৎকার করলেও একইভাবে এসএমএস পৌঁছে যাবে। ফোনে ইন্টারনেট না থাকলেও কাজ করবে এই অ্যাপ। অ্যাপটি পরীক্ষা করে দেখে কলেজ হস্টেলের ছাত্রীদের মধ্যে চালু করার চেষ্টা করছে সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ কর্তৃপক্ষ। কিছুদিনের মধ্যেই গুগল প্লে স্টোরে মিলবে অর্কপ্রভর তৈরি এই অ্যাপ।

মোবাইল ঝাঁকালেই যাবে এসএমএস, মহিলাদের সুরক্ষায় অর্কপ্রভর অ্যাপ| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
এভাবেই মেসেজ যাবে পুলিশ-আত্মীয়দের কাছে

জলপাইগুড়ির নিউ টাউনপাড়ার বাসিন্দা অর্কপ্রভ। এর আগেও এক বন্ধুর সঙ্গে মিলে একটি অ্যাপ তৈরি করেছিলেন তিনি। তাতে কোনও নেটওয়ার্ক ছাড়াই নির্দিষ্ট দূরত্বে মোবাইল ফোনে কথা বলা সম্ভব হয়েছিল। সেই অ্যাপটিও কলেজে সাড়া ফেলেছিল। এবার একাই সুরক্ষা অ্যাপ তৈরি করেছেন অর্কপ্রভ। মূলত মহিলাদের কথা চিন্তা করেই এই অ্যাপ তৈরি করেছেন বলে জানান তিনি। ইভটিজিং, অপহরণ বা ধর্ষণের চেষ্টার ক্ষেত্রে এই অ্যাপ কাজে আসবে বলে আশা অর্কপ্রভর। তিনি জানান, এই ধরনের একাধিক অ্যাপ গুগল প্লে স্টোরে রয়েছে। কিন্তু সেগুলি ইন্টারনেট ছাড়া কাজ করে না। তাঁর তৈরি অ্যাপটি ইনস্টল থাকলে মোবাইল ফোনটি তিনবার জোরে ঝাঁকুনি দিলে বা পকেটে থাকা অবস্থায় মোবাইলের গায়ে তিনবার আঘাত করলে অ্যাপে আগে থেকে সেভ করে রাখা পুলিশ, পরিবার ও নিকটাত্মীয়র মোবাইল নম্বরে মেসেজ চলে যাবে। ফোনে ইন্টারনেট চালু না থাকলেও মেসেজ যাবে। এছাড়া ফোনের পাওয়ার বাটনটি তিনবার চাপ দিলেও এসএমএস যাবে। অর্কপ্রভ বলেন, আমি এই অ্যাপে ভয়েস রেকগনাইজেশনের মতো কয়েকটি সুবিধা যোগ করতে চলেছি। চিৎকার করে তিনবার হেল্প বললেও এসএমএস যাবে। এক্ষেত্রে গুগল ভয়েস এপিআই এবং ম্যাপ এপিআইয়ের সাহায্য নেওয়া হচ্ছে। অর্কপ্রভর তৈরি অ্যাপ নিয়ে খুশি জলপাইগুড়ি সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের অধ্যক্ষ অমিতাভ রায়। তিনি বলেন, আমি নিজেও অর্কর তৈরি করা অ্যাপটি দেখেছি। মেয়েদের ক্ষেত্রে এই অ্যাপটি খুবই সাহায্য করবে। আমরা ভেবেছি কলেজের হস্টেলে যেসব মেয়েরা থাকে, তাদের প্রত্যেকের মোবাইলে অ্যাপটি ইনস্টল করতে বলব। এই অ্যাপ নিয়ে জলপাইগুড়ি রাষ্ট্রীয় বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষিকা দেবলীনা রায় বলেন, এই ধরনের অ্যাপ মহিলাদের খুবই সাহায্য করবে। গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপটি এসে গেলেই নিরাপত্তার স্বার্থে মহিলাদের মোবাইলে অ্যাপটি ইনস্টল করা উচিত। এই বিষয়ে কোতোয়ালি থানার আইসি বিশ্বাশ্রয় সরকার বলেন, আমরাও বিভিন্ন স্কুল-কলেজে মেয়েদের নিরাপত্তা এবং সাইবার ক্রাইম নিয়ে সচেতন করে থাকি। ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্রের তৈরি এই অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোরে চলে এলে আমরাও বিভিন্ন সচেতনতা শিবিরে মহিলাদের অ্যাপটি ইনস্টল করে নেওয়ার জন্য বলব।

- Advertisement -