প্লে-অফের পথে কাঁটা ক্যাপ্টেন মরগ্যান

দুবাই : সানরাইজার্স হায়দরাবাদের দখল নিয়ে প্লে-অফ স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখা। বৃহস্পতিবারের রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের মোডে ঢুকে পড়া। শেষ ম্যাচ জয়ের প্রতিজ্ঞা সেরে ফেলা।

উপরি হিসেবে আজ আন্দ্রে রাসেল হোটেলের ঘরেই হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট সারানোর জন্য মরিয়া চেষ্টা শুরু করেছেন। সোশ্যাল দুনিয়ায় তাঁর ট্রেনিংয়ের ভিডিযো কারোর নজর এড়ায়নি। আর দ্রে রাসের হালকা ট্রেনিং শুরুর পরই রাজস্থান ম্যাচে তাঁর কামব্যাক নিয়ে স্বপ্ন দেখা শুরু হয়েছে। যদিও কেকেআরের অন্দরমহলের খবর, সঞ্জু স্যামসনদের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাসেলের মাঠে ফেরার সম্ভাবনা বেশ ক্ষীণ। হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পুরো না সারিয়ে মাঠে নামলে টি২০ বিশ্বকাপে রাসেল অনিশ্চিত হয়ে পড়তে পারেন।

- Advertisement -

এসব দেখে বাইরে থেকে দেখে মনে হবে আদ্যন্ত সুখী পরিবারের নাম কেকেআর। আর এখানেই কাহানি মে টুইস্ট!

নাইটদের অন্দরে সবচেয়ে বড় গোলকধাঁধার নাম দলের অধিনায়ক ইয়োন মরগ্যান। চলতি আইপিএলে কেকেআরের হয়ে ১২ ইনিংসে তাঁর রান ১১৩। প্রথম একাদশ নির্বাচনের ক্ষেত্রে তাঁর লাগাতার ভুল ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের নজর এড়ায়নি। তাছাড়া সাকিব আল হাসান, হরভজন সিংদের মতো সিনিয়রদের নিয়মিত ডাগআউটে বসিয়ে রাখার ব্যাপারটাও কেকেআরের অন্দরের একটা বড় অংশ ভালভাবে নেয়নি। গত রাতে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ম্যাচে প্রথম সুযোগেই সাকিব প্রমাণ করেছেন, তাঁকে প্রথম একাদশের বাইরে রাখা ভুল ছিল। একইভাবে ভাজ্জিও বিরক্ত হয়ে রয়েছেন কেকেআর টিম ম্যানেজমেন্টের উপর।

সাকিব-শুভমান গিলে ভর দিয়ে গত রাতে নিজামের শহরের দখল নেওয়ার পর কেকেআর অধিনায়ক তাঁর সতীর্থদের প্রশংসা করতে বাধ্য হয়েছেন। কিন্তু নিজে কবে রানে ফিরবেন, রাসেলের চোটের কী অবস্থা, রাজস্থান ম্যাচে তাঁকে পাওয়া যাবে কি না- এমন কোনও প্রশ্নের জবাব দিতে পারেননি। বরং দলের কাঁটা হয়ে ওঠার গ্লানি ঘোচানোর জন্য মরগ্যান বলেন, যখনই অনেকদিন রান পাই না, তখনই বড় রান খুব কাছে থাকে। আমি নিশ্চিত, দ্রুত রানে ফিরব আমি। ক্যাপ্টেন মরগ্যান যখন রানে ফিরবেন, তখন আইপিএলে কেকেআর থাকবে কি না, সেটাই এখন দেখার।