স্ত্রী’র টানে কোভিড হাসপাতাল থেকে পলাতক রোগীকে ধরল পুলিশ

695

পুরাতন মালদা: স্ত্রী’র সঙ্গে দেখা করতে রাতের অন্ধকারে কোভিড হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান এক করোনা আক্রান্ত রোগী। যদিও খবর পেয়েই পুলিশ ওই যুবককে আটক করে ফের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করায়। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে পুরাতন মালদার মহিষবাথানি গ্রাম পঞ্চায়েতের বালুয়াটোলা গ্রামে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত রবিবার মহিষবাথানির বালুয়াটোলার নাপিতপাড়ার এক পরিযায়ী শ্রমিকের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। সেই রাতেই তাঁকে পুরাতন মালদার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাশাপাশি আক্রান্ত যুবকের স্ত্রী সমেত তাঁর সংস্পর্শে আসা ৩৬ জনকে মহিষবাথানির একটি স্কুলের আইসোলেশন সেন্টারে রাখা হয়। যদিও সোমবার গভীর রাতে কোভিড হাসপাতাল থেকে সকলের নজর এড়িয়ে পালিয়ে যান ওই যুবক। সরাসরি মহিষবাথানির বালুয়াটোলায় নিজের গ্রামে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার উদ্দেশ্যে ফিরে যান তিনি। তাঁর স্ত্রীও রাতের অন্ধকারে আইসোলেশন সেন্টার থেকে বেরিয়ে চলে আসেন।

- Advertisement -

এদিকে, রোগী নিখোঁজ হওয়ার ঘটনার খবর পেয়ে চাঞ্চল্য ছড়ায় কোভিড হাসপাতালে। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় মালদা থানায়। অন্যদিকে, গ্রামবাসীরা করোনা আক্রান্ত যুবককে গ্রামে ঘোরাঘুরি করতে দেখে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ দ্রুত সেখানে গিয়ে ওই যুবককে আটক করে হাসপাতালে ভর্তি করে। তাঁর স্ত্রীকেও পাঠানো হয় আইসোলেশন সেন্টারে। এমন ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় বালুয়াটোলায়।

কোভিড হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, গভীর রাতে হাসপাতালের পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান তিনি। তাই কারোরই নজরে পড়েনি বিষয়টি। ঘটনার পরই আটোসাঁটো করা হয়েছে কোভিড হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।