৪ হাসপাতাল ঘুরেও বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু প্রৌঢ়র

158

কলকাতা: মঙ্গলবার একটি দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছিলেন বর্ধমানের বাসিন্দা নন্দদুলাল দাস নামে এক প্রৌঢ়। আহত অবস্থায় তাঁর মেয়েরা প্রথমে তাঁকে চিকিৎসার জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে স্ক্যানের পাশাপাশি তাঁর প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়। কিন্তু অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁকে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে রেফার করেন।

এরপর নন্দবাবুর মেয়ে ও আত্মীয়রা তাঁকে এসএসকেএমে নিয়ে আসেন। কিন্তু সেখানে তাঁদের জানিয়ে দেওয়া হয়, বেড খালি না থাকায় তাঁকে ভর্তি নেওয়া যাবে না। নন্দবাবুকে পূর্ব কলকাতার পার্ক সার্কাসের ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে নিয়ে যেতে বলা হয় আত্মীয়-পরিজনদের। তাঁরা নন্দদুলালবাবুকে সেখানে নিয়ে যান। সেখান থেকেও তাঁদের বেড নেই বলে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

- Advertisement -

এরপর পরিবারের সদস্যরা গুরুতর আহত নন্দবাবুকে শিয়ালদার এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেও কোনও বেড খালি নেই বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। চার হাসপাতাল ঘুরে কোথাও ভর্তি হতে না পেরে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হয় নন্দবাবুর।

মৃত ব্যক্তির আত্মীয়-পরিজনদের বক্তব্য, মুখ্যমন্ত্রী বারবার নির্দেশ দিয়েছেন যে কোনও রোগীকে হাসপাতাল থেকে ফেরানো যাবে না। কিন্তু তা সত্ত্বেও যেভাবে চারটি হাসপাতাল থেকে বেডি খালি নেই বলে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে, তা দুর্ভাগ্যজনক।