বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ

909

অনলাইন ডেস্ক: অমিত শাহের ভার্চুয়াল জনসভার পর রাজ্যে দলবদল শুরু হয়ে গেল।

দিনকয়েক ধরে চলা জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মঙ্গলবার প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ অলিম্পিয়ান জ্যোতির্ময়ী শিকদার বিজেপিতে যোগ দিলেন। দলের রাজ্য সদর দপ্তরে দিলীপ ঘোষ ও রাহুল সিনহা তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন। ২০০৪-এর লোকসভা নির্বাচনে কৃষ্ণনগরের সাংসদ হয়েছিলেন তিনি। কয়েকদিন ধরেই তাঁর দলবদল নিয়ে জল্পনা চলছিল।

- Advertisement -

শনিবার সকালে জ্যোতির্ময়ীদেবীর বাড়িতে যান দিলীপ ঘোষ। সেই ছবি ভাইরাল হয়। সোনাজয়ী প্রাক্তন অ্য়াথলিট দিলীপবাবুকে চা খাওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। বিজেপি রাজ্য সভাপতি জ্যোতির্ময়ীদেবীকে পদ্মফুল উপহার দেন। এরপরই তাঁর বিজেপিতে যোগদান ঘিরে জল্পনা শুরু হয়।

তবে এনিয়ে দুপক্ষের কেউই মুখ খোলেননি। অবশেষে তিনদিন পর এদিন তিনি বিজেপির রাজ্য সদর দপ্তরে উপস্থিত হন। তারপর দলের রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও প্রাক্তন সভাপতি রাহুল সিনহা তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন। উপস্থিত ছিলেন মুকুল রায়ও।

২০০৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে কৃষ্ণনগর কেন্দ্রে সিপিএমের টিকিটে প্রথমবার দাঁড়িয়ে জিতেছিলেন তিনি। তবে ২০০৯-এর নির্বাচনে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী তাপস পালের কাছে হেরে যান তিনি। এরপর ২০১৬ সালেও বামেদের টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে লড়েন তিনি। তবে সেবারও হারতে হয় তাঁকে।

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে হঠাৎই তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। তবে তৃণমূলে সেভাবে সক্রিয় ভূমিকায় দেখা যায়নি তাঁকে। রাজনৈতিক সমাবেশে তাঁকে খুব একটা দেখা যেত না।

৫১ বছর বয়সি এই অ্যাথলিট এশিয়ান গেমসে এবং এশিয়ান অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন। রাজীব গান্ধী খেলরত্নও পান তিনি। ১৯৯৫-এ অর্জুন পুরস্কার পান। রাজনৈতিক ওয়াকিবহল মহলের মতে, ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে যে কোনও প্রকারে নিজেদের ঘর গোছাতে চাইছে বিজেপি।

গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে ১৮টি আসন পেলেও দক্ষিণবঙ্গের নানা জায়গায় সেভাবে দাঁত ফোটাতে পারেনি বিজেপি। তাই জনপ্রিয় মুখকে দলে এনে সমর্থন বাড়াতে চাইছে তারা। তার ফলশ্রুতিই যে এই দলবদল, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।