‘পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে সরকার গড়তে দিলে বড় সর্বনাশ হয়ে যাবে’ মন্তব্য মাণিক সরকারের

335

বর্ধমান: কেন্দ্রের সরকার কৃষক বিরোধী বিল পাশ করে আসলে বড় পুঁজিপতিদের হাত শক্ত করছে। এরফলে প্রকৃত কৃষকরা বঞ্চিত হবে আর কর্পোরেট সংস্থাগুলি  সুবিধা পাবে বলে মঙ্গলবার জানালেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। এদিন বিকেলে বর্ধমান টাউন হলে অনুষ্ঠিত সিপিআইএমের জনসভায় সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেন্দ্র এবং ত্রিপুরার বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানান তিনি। একই সঙ্গে স্পষ্ট বার্তা দেন, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে সরকার গড়তে দেবেন না। বিজেপি সরকার গড়লে বড় সর্বনাশ হয়ে যাবে।

বর্ধমানে জনসভায় মাণিক সরকার দাবি করেন, বিজেপি ‘ডিভাইড এ্যন্ড রুল’ অর্থাৎ ধর্মের মাধ্যমে আন্দোলনকে ভাগ করতে চাইছে। সেই কারণে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। তার কথায়  বিজেপি সরকার লকডাউনে মানুষকে বিপদে ফেলেছিল। পরিযয়ী শ্রমিকদের সমস্যার কথা জেনেও  বিজেপি সরকার তাদের কথা ভাবেনি।

- Advertisement -

এদিন মাণিকবাবু জানান, দেশে গরিব ও বেকারের সংখ্যা বাড়ছে। কিন্তু দেশে কয়েকটি পরিবার শুধু মুনাফা লুটছে। এর জন্য দায়ী আরএসএস পরিচালিত বিজেপি সরকার। আন্তর্জাতিক বাজারে পেট্রোল, ডিজেলের দাম কমলেও ভারতে পেট্রোল, ডিজেল ও গ্যাসের দাম বাড়ছে। তাতে লাভবান হচ্ছে আদানি, আম্বানিরা। এতেই স্পষ্ট বিজেপি মহাজন ও মালিকদের স্বার্থ দেখছে।

এদিন বর্ধমানের সভা মঞ্চ থেকে নির্বাচন কমিশনকেও একহাত নেন মানিক সরকার। কেন্দ্র ও রাজ্য উভয় নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করছে না তোপ দাগলেন তিনি।