চা গাছ গোড়া থেকে কেটে ফেলায় উত্তেজনা

118

জামালদহ: একের পর এক চা গাছ গোড়া থেকে কেটে ফেলায় উত্তেজনা ছড়াল। রবিবার কোচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ ব্লকের জামালদহ এলাকার কেএফএগ্রো চা বাগানের ঘটনা। সম্প্রতি ওই বাগানের ১.৪৭ হেক্টর জমি নিয়ে বিতর্ক দেখা দেয়। বন বিভাগের জমি দখল করে অবৈধভাবে ওই চা বাগান গড়ে উঠেছে বলে জামালদহ গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর দ্বারিকামারী এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ। এ বিষয়ে আগেই প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন বাসিন্দারা। সেই বিতর্কের নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই এদিন সেই এলাকা জুড়ে থাকা চা গাছ গুলি গোড়া থেকে কেটে ফেলা হচ্ছে। এদিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন কোচবিহার জেলা সহকারি বনাধিকারিক বিজন কুমার নাথ, রেঞ্জার সজল পাল প্রমুখ। সজলবাবুও বলেন, নিয়ম মেনেই জমি খালি করা হচ্ছে।

বাগান কর্তৃপক্ষের দাবি, সেই অভিযোগের নিষ্পত্তি না হতেই এদিন আচমকাই মেশিন লাগিয়ে বাগানের চা গাছ একের পর এক কেটে ফেলা হচ্ছে। বন বিভাগকে চাপ দিয়ে গ্রামবাসীদের একাংশ এই অন্যায় কাজ করাচ্ছে।জামালদহ বনাঞ্চলের বিট অফিসার পরিমল বর্মন জানিয়েছেন, ওই জমিটি বন বিভাগের এলাকার মধ্যে পড়ে। বাগান কর্তৃপক্ষকে জমি খালি করার জন্য বহুবার বলা হয়েছিল। কিন্তু খালি করেনি। তাই গাছগুলো কেটে ফেলা হচ্ছে।

- Advertisement -

বাগান কর্তৃপক্ষের দাবি, কোনও নিয়ম মানা হয়নি। যা হচ্ছে, জোরপূর্বক হচ্ছে। তাঁদের এক কর্মী ও ম্যানেজারকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। জামালদহ যৌথ বন সুরক্ষা কমিটির সভাপতি হিমাংশু রায় মাঝি বলেন, ‘সামান্য তর্ক-বিতর্ক হয়েছে। কিন্তু কাউকে মারধর করা হয়নি।’