আস্তাকুঁড় থেকে সদ্যজাতকে উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

0
308
- Advertisement -

বর্ধমান: আস্তাকুঁড় থেকে উদ্ধার হল এক সদ্যজাত জীবিত শিশুকন্যা। এই ঘটনা জানাজানি হতেই শুক্রবার সকাল থেকে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে পূর্ব বর্ধমানের গলসির মিলিক পাড়ায়। আর এই ঘতনা চাওর হতেই গলসি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছায়। পুলিশ সদ্যজাত শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য আদরাহাটী ব্লক স্বাস্থকেন্দ্রে পাঠায়। সদ্যজাত শিশুকন্যাকে কারা আস্তাকুঁড়ে ফেলে গেল তাঁর তদন্ত পুলিশ শুরু করেছে।

গলসির মিলিক পাড়ার বাসিন্দা বাপি মিদ্দা জানান, এদিন ভোরে গ্রামের এক মহিলা সদ্যজাত শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। শিশুর খোঁজে তিনি এদিক ওদিক দেখতে শুরু করেন। তখনই মহিলার নজর যায় মিলিক পাড়ার আস্তাকুঁড়ের দিকে। ওই মহিলা আস্তাকুঁড়ে পলিথিন প্যাকেটে মোড়া অবস্থায় সদ্যোজাত শিশুকন্যাকে দেখতে পেয়ে প্রতিবেশিদের সেখানে ডেকে আনেন।

মহিলারা শিশুকন্যাকে দেখে নিশ্চিত হন শুক্রবার ভোর রাতেই শিশুটির জন্ম হয়েছে। এদিন ভোরেই কেউ শিশুটিকে আস্তাকুঁড়ে ফেলে দিয়ে পালিয়ে গিয়েছে। গায়ে পিঁপড়ে কামড়াতে থাকায় শিশুটি কান্নাকাটি করছিল। এলাকার এক মহিলা পিঁপড়ের কামড় থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে শুশ্রুষা করলে তাঁর কান্নকাটি বন্ধ হয়।

পরে পুলিশ গ্রামে এসে শিশু কন্যাটিকে উদ্ধার করে আদরাহাটী হাসপাতালে ভর্তি করে। শিশুটির প্রতি এমন অমানবিকতা যারা দেখিয়েছেন তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন মিলিক গ্রামের মহিলারা।

- Advertisement -