শিশু ও যুবকের গলা কাটা দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

253

বর্ধমান: সাতসকালে দেড় বছর বয়সী এক শিশু ও এক যুবকের গলা কাটা দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমানে। ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার সকালে পূর্ব বর্ধমানের কালনা থানার ময়নাগুড়ি মাতিশ্বর এলাকায়। মৃতরা হলেন গোবিন্দ মান্ডি (২৩) ও জয় কিস্কু। দুই জনেরই বাড়ি মাতিশ্বর এলাকাতে। রহস্যজনক এই মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত শুরু করছে কালনা থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গোবিন্দ মান্ডি সম্পর্কে জয় কিস্কুর কাকা হয়। মাতিশ্বর গ্রামে পাশাপাশি তাদের বাড়ি। এদিন শিশুর জ্যেঠু অজয় কিস্কু জানান, গোবিন্দ প্রাইভেট টিউশনি করে। লজেন্স ও বিস্কুট কিনে দেবে বলে আজ সকালে গোবিন্দ জয়কে নিয়ে যায়। পরে খবর আসে গোবিন্দদের খামার বাড়িতে গোবিন্দ ও জয়ের গলাকাটা রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে। ঘটনার কথা জেনে এলাকার সকলে স্তম্ভিত হয়ে যায়। পরিবার সদস্যদের পাশাপাশি প্রচুর মানুষ সেখানে ভিড় জমাতে শুরু করে।

- Advertisement -

স্থানীয় অনুজ সোরেন জানান, ঘটনার কথা জানানো হয় বুলবুলিতলা পুলিশ ফাঁড়িতে। কালনা থানা ও বুলবুলিতলা ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রক্তাক্ত অবস্থায় থাকা দু’জনকেই উদ্ধার করে কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই মৃত ঘোষনা করেন।

অনুজ আরও জানান, এই জোড়া মৃত্যুর ঘটনা কিভাবে ঘটল তা নিয়ে মৃতদের পরিবার পরিজন ও এলাকাবাসী সবাই অন্ধকারে রয়েছেন। এদিনই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ মর্গে মৃতদেহ দুটির ময়নাতদন্ত হয়। কালনা থানার পুলিশ রহস্যজনক এই মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে নামলেও মৃত্যুর কারণ নিয়ে অন্ধকারে রয়েছেন পুলিশ কর্তারাও।

মৃত যুবকের মা মিনতি মাণ্ডি এদিন জানান, কিভাবে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটল তা তিনি বুঝে উঠতে পারছেন না। তবে তিনি আশঙ্কা করছেন কেউ তাঁর ছেলে ও শিশু পুত্র জয়কে খুন করে পালিয়েছে। শিশুপুত্রের মা অঞ্জলি কিস্কুও একই আশঙ্কার কথা শুনিয়েছেন। তবে কারা খুন করতে পারে বা কি কারণে খুন করবে সে বিষয়ে দুই পরিবারে কেউই কিছু জানাতে পারেননি।

অন্যদিকে, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দ্রুব দাস জানিয়েছেন, ‘দুই জনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ওই মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।’