ফেসবুক এবং টুইটার কর্তৃপক্ষকে তলব সংসদীয় কমিটির

130

Online Desk: বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়া একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগের একটি অন্যতম মাধ্যম। গত কয়েকবছরে ভারতে বেড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার। করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের পর তা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। আবার এর সঙ্গেই বেড়েছে সাইবার অপরাধও। এমনকি ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যও সুরক্ষিত নয়। এই প্রসঙ্গেই এবার ফেসবুক এবং টুইটারের আধিকারিকদের সমন পাঠাল তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটি। আগামী ২১ জানুয়ারি দুই সংস্থার আধিকারিকদের কমিটির সামনে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতেই এই পদক্ষেপ।

- Advertisement -

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতে এবং ব্যবহারকারীদের তথ্য সুরক্ষিত রাখার বিষয়ে কি কি করা হয়েছে, তা জানতেই মূলত ওই দুই সংস্থার আধিকারিকদের ডাকা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিগত কয়েকদিন ধরেই শিরোনামে রয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। যদিও পরে হোয়াটসঅ্যাপের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, প্রাইভেসি আপডেটের বিষয়টি আপাতত স্থগিত থাকছে। ফেসবুকের মালিকানাধীন সংস্থার তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে, যে তারিখের মধ্যে সবাইকে পলিসি আপডেটের বিষয়ে সম্মতি দিতে বলা হয়েছিল তা বাতিল করা হয়েছে। অর্থাৎ ৮ ফেব্রুয়ারি কারও অ্যাকাউন্টই ডিলিট করা হবে না।