ভাটিবাড়ি, ৭ মেঃ অষ্টমী স্নানের পর অক্ষয় তৃতীয়া উপলক্ষ্যে আলিপুরদুয়ার-কোচবিহার জেলার সীমান্ত লাগোয়া নাটাবাড়ি গদাধর নদীর তিরে পুণ্য স্নান মেলায় মাতলেন অসংখ্য ভক্তরা। নাটাবাড়ি ছাটরামপুর ঘাটপাড় মেলা কমিটির উদ্যোগে মঙ্গলবার অক্ষয় তৃতীয়া উপলক্ষ্যে গঙ্গা এবং রাধাগোবিন্দ পুজোর আয়োজন করা হয়। পুজোকে ঘিরে নদীতিরে তিন দিনের মেলাও বসেছে।

এদিন সকাল থেকেই হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ গদাধর নদীতিরে ভিড় জমান। নদীতে পুণ্য স্নানের পর মনস্কামনা পূরণে মন্দিরে পুজোও দেন অনেকে। পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনায় তর্পণ করা হয়। শুধু তাই নয়, সমাজ এবং পরিবারের কল্যাণে এবং শান্তি ও মঙ্গল কামনায় পুজো দিয়ে পায়রা ওড়ানোর রীতিও বহুকাল ধরেই চলে আসছে। এবারেও তার অন্যথা হয়নি। কলা, দই, চিঁড়া,গুড় মেখে খাওয়া এই মেলার অন্যতম প্রচলিত রেওয়াজ।

কমিটির পক্ষ থেকে মেলা চত্ত্বরে তিন দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। মেলার নিরাপত্তায় স্বেচ্ছাসেবক ছাড়াও রয়েছে তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ। অক্ষয় তৃতীয়া মেলা কমিটির সহসম্পাদক দুধেশ্বর রায় জানান, মানত পূরণের এই ঐতিহ্যবাহী মেলা এবারে ৬৬ বছরে পদার্পণ করল। নাটাবাড়ি ছাটরামপুর ঘাটপাড় এলাকায় গদাধর নদী উত্তরবাহিনী। মনোবাঞ্ছা পূরণ হওয়ায় দূরদূরান্ত থেকে বহু ভক্ত মন্দির প্রাঙ্গণে ভিড় জমান এবং প্রণামী হিসেবে নগদ টাকা, সোনা-রূপার অলংকার দান করে নিয়ম নিষ্ঠা সহকারে পুজো দেন।