সাহিত্যিক দেবেশ রায় প্রয়াত

639

কলকাতা : বিশিষ্ট সাহিত্যিক দেবেশ রায় প্রয়াত। এদিন রাত ১০.৫০ নাগাদ তিনি কলকাতায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।  ১৯৩৬-এর ১৭ ডিসেম্বর পাবনায় জন্মগ্রহণ করেন দেবেশ রায়।

তবে তাঁর জীবনের অনেকটা সময় কেটেছে উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলায়। জলপাইগুড়ি আনন্দ মডেল এমই স্কুলে তিনি পড়াশোনা করেন। এরপর আনন্দচন্দ্র কলেজে ভর্তি হন। ১৯৬০ থেকে ৭০-এর দশকের মাঝামাঝি পর্যন্ত তিনি ওই কলেজেই অধ্যাপনা করেন। উত্তরবঙ্গ সংবাদ-এ নিয়মিত লিখতেন দেবেশবাবু। আদতে জলপাইগুড়ির বাসিন্দা হলেও দীর্ঘদিন ধরে কলকাতায় থাকতেন তিনি ।

- Advertisement -

১৯৯০ সালে ‘তিস্তাপারের বৃত্তান্ত’ উপন্যাসের জন্য দেবেশ রায় আকাদেমী পুরস্কার পান। তাঁর লেখা উল্লেখযোগ্য বইগুলি হল ‘তিস্তাপুরাণ’, ‘মানুষ খুন করে কেন’, ‘একটি ইচ্ছামৃত্যুর প্রতিবেদন’ ‘দাস জীবনের তালাশে ইয়ুসুফ’ ইত্যাদি।

তাঁর লেখাতে বরাবরই স্থান পেয়েছে উত্তরবঙ্গ তথা ডুয়ার্সের নদী, জঙ্গল। রাজবংশী, সাঁওতাল সহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জনজাতির কথা তিনি তুলে ধরেছেন লেখায়। ১৯৬৮ সালে জলপাইগুড়িতে ভয়াবহ বন্যা হয়েছিল। ওই বন্যা দেখতে এসেছিলেন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোরারজি দেশাই। তাঁকে সেইসময় হেঁটে এলাকা ঘুরে দেখতে বাধ্য করেছিলেন দেবেশবাবু বলে জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন।