প্রয়াত ‘মেমসাহেব’ খ্যাত সাহিত্যিক নিমাই ভট্টাচার্য

অনলাইন ডেস্ক: প্রয়াত ‘মেমসাহেব’ খ্যাত সাহিত্যিক নিমাই ভট্টাচার্য। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কলকাতার টালিগঞ্জের বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। বেশ কয়েকবছর ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন নিমাই ভট্টাচার্য।

- Advertisement -

১৯৩১ সালের ১০ এপ্রিল বাংলাদেশের মাগুড়াতে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। স্বাধীনতার পর পশ্চিমবঙ্গে আসেন সাহিত্যিক। কলকাতার রিপন কলেজে পড়াশুনা তাঁর।

সাংবাদিকতা দিয়েই কর্মজীবন শুরু তাঁর। সাংবাদিকতার পাশাপাশি একসময় সাহিত্যচর্চাও শুরু করেন তিনি।  ১৯৬৩ সালে অমৃতবাজার পত্রিকায় তাঁর উপন্যাস বের হয়। দ্রুতই সাহিত্যিক হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি।

প্রায় ১৫০টি বই লেখেন তিনি। তাঁর লেখা উপন্যাসগুলির মধ্য়ে ‘মেমসাহেব’ অন্যতম। এই উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে পরে সিনেমাও তৈরি হয়। তাঁর অন্যান্য উপন্যাসগুলি মধ্যে পিয়াসা, ম্যারেজ রেজিস্ট্রার, ডিপ্লোম্যাট, অষ্টাদশী, নাচনী, ইমনকল্যাণ, ব্যাচেলর জনপ্রিয়।

তাঁর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শোকবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘বিশিষ্ট সাহিত্যিক নিমাই ভট্টাচার্যের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি।….. তাঁর মৃত্যুতে সাহিত্য জগতে বিশাল শূন্যতার সৃষ্টি হল। রাজ্য সরকার তাঁকে বঙ্গবিভূষণ সম্মান প্রদান করেছে।’

মুখ্যমন্ত্রী আরও লিখেছেন, ‘…তাঁর সঙ্গে আমার আলাপ দীর্ঘদিনের। আজকের দিনে তাঁর এই চলে যাওয়ায় আমি ব্যক্তিগত বেদনা অনুভব করছি। ওনার সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক থাকার ফলে খুব খারাপ লাগছে। আমি নিমাই ভট্টাচার্যের পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’