অশান্তির জের, পিছিয়ে গেল সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটির সঙ্গে কৃষকদের বৈঠক

106

নয়াদিল্লি: রাজধানীতে হিংসার জেরে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটির পূর্ব নির্ধারিত বৈঠক পিছিয়ে গেল। বুধবার দ্বিতীয় দফায় দুই পক্ষের বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও গতকাল দিল্লিতে দিনভর তাণ্ডবের জেরে এখনও বহু জায়গায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়নি। জানা গিয়েছে, আগামী ২৯ জানুয়ারি দু’পক্ষ ফের আলোচনায় বসতে পারে।

বিতর্কিত ৩টি কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের নির্দেশে চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে শীর্ষ আদালত। গত ২১ জানুয়ারি আন্দোলনকারী কৃষক এবং সরকারি প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রথমবার বৈঠক করে ওই কমিটি। কিন্তু গতকালের ঘটনার পর আপাতত বৈঠক স্থগিত রাখা হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনা হওয়া সম্ভব কিনা, তা নিয়েও আলোচনা চলছে।

- Advertisement -

গতকাল কৃষকদের ট্র্যাক্টর মিছিল ঘিরে রণক্ষেত্র চেহারা নেয় দিল্লি। পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশ লাঠিচার্জ এবং কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। ব্যারিকেড ভাঙার পাশাপাশি সরকারি বাস এবং গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন আন্দোলনকারীরা। ট্র্যাক্টরে চাপা পড়ে মৃত্যু হয় এক কৃষকের। এদিকে, লালকেল্লার ব্যারিকেড ভেঙে ভিতরে ঢুকে পড়েন আন্দোলনকারী কৃষকদের একাংশ। লালকেল্লার গম্বুজে উঠে ধর্মীয় পতাকা তুলে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় আন্দোলনকারীদের সীমান্তে ফেরার জন্য বারবার আবেদন করতে থাকেন নেতারা। আন্দোলনকারীদের সংযত হওয়ার আবেদন করে সীমান্তে ফিরে যেতে বলেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরেন্দ্র সিংও। দিল্লিতে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল সন্ধ্যায় প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা। পরিস্থিতি সামলাতে অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। হিংসার জেরে এখনও দিল্লির বেশ কিছু জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। জখম হয়েছেন তিন শতাধিক পুলিশকর্মী। সিংঘু এবং টিকরি সীমান্তে মোতায়েন রয়েছে ৩০ কোম্পানি সিআরপিএফ।