আজ থেকে টোলপ্লাজায় বাধ্যতামূলক ফাসট্যাগ

329

নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রকের নির্ধারিত ছাড়ের সময়সীমা ফুরিয়ে যাওয়ায় আজ থেকে থেকে সারা দেশে জাতীয় সড়কের সমস্ত টোলপ্লাজায় যাত্রী এবং পণ্যবাহী গাড়িতে ফাসট্যাগ লাগানো বাধ্যতামূলক হচ্ছে। গাড়িতে ফাসট্যাগ না থাকলেই দ্বিগুণ টাকা জরিমানা দিতে হবে।

জানা গিয়েছে, এতদিন গাড়িতে ফাসট্যাগ চালু থাকলেও টোলপ্লাজায় বেশ কয়েকটি জেনারেল লেন চালু ছিল যেখানে টাকা দিয়ে টোল পার করা যেত। তবে এদিন রাত ১২টার পর থেকেই তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সূত্রের খবর, সেক্ষেত্রে একটিমাত্র জেনারেল লেন খোলা থাকবে যেখান দিয়ে এই ফাসট্যাগ ছাড়া গাড়ি পার করানো যাবে। তবে এই বিষয়ে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের এক আধিকারিকের বক্তব্য, ট্রাক এবং বেসরকারি বাস কোনওভাবেই ফাসট্যাগ লাগাতে চাইছে না। কারণ, ফাসট্যাগ লাগালে সরকারি নিয়মের আওতায় চলে আসায় ওভারলোডিং ট্রাক, কয়লা বা পাথর বোঝাই ট্রাকের যাবতীয় তথ্য জাতীয় হাইওয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে নথিভুক্ত হয়ে যাবে। প্রসঙ্গত, এর আগে ১ জানুয়ারি থেকে ফাসট্যাগ বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও পরিস্থিতি বিবেচনা করে সেই সময়সীমা ১৫ ফেব্রুয়ারি করা হয়। তবে তাতেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। বহু গাড়ি এখনও ফাসট্যাগ লাগায়নি। এদিকে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ট্রাক মালিকরা। তাঁদের দাবি, গাড়ির চালকরা অধিকাংশই অশিক্ষিত। তাঁরা এই পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারবেন না। তাছাড়াও যে সমস্ত ব্যাংকের সঙ্গে এই ট্যাগ লিংক করা হয়েছে, তা অনেকক্ষেত্রেই সময়মতো কাজ করছে না বলে অভিযোগ। যে কারণে টোল প্লাজায় গাড়ির লম্বা লাইন পড়ে যাচ্ছে। সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। জানা গিয়েছে, রাজ্যে উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ মিলিয়ে জাতীয় সড়কে মোট ২৫টি টোল প্লাজা রয়েছে। যেখান দিয়ে দিনে হাজার হাজার বাস, ট্রাক এবং চার চাকার গাড়ি যাতায়াত করে। তাঁরা প্রত্যেকেই এই নিয়মের বিরোধিতা করছেন।

- Advertisement -