ছেলেকে খুন করে গা ঢাকা দিল বাবা,চাঞ্চল্য বর্ধমানে

305

বর্ধমান: বাড়িতে নিয়মিত বাবা-মায়ের ঝগড়া লেগেই থাকত। বাবার মারধর হজম করতে হত মা’কে। এই ঘটনা মেনেনিতে না পেরে বাবার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হয়েছিল ছোট ছেলে। তারই বদলা নিতে নিজের ছেলেকে খুন করে পালানোর অভিযোগ উঠলো বাবার বিরুদ্ধে। বুধবার চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি বর্ধমান থানার রায়ানের নারায়ণদিঘি এলাকার।পুলিশ হন্যে হয়ে যুবকের বাবার খোঁজ চালানো শুরু করেছে। পুলিশ জানিয়েছে,মৃতর নাম তারক রায় (২৩)।

এদিন দুপুরে রায়ানের নারাণদিঘির বাড়ির বারান্দায় থাকা তক্তার উপরে পড়ে থাকে যুবকের রক্তাত মৃতদেহ। খবর পেয়ে, বর্ধমান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে। ওই সময়েই যুবকের মুখে থাকা আঘাতের চিহ্ন পুলিশের নজরে আসে। তদন্তকারী পুলিশ কর্তাদের প্রাথমিক অনুমান, ঘুমন্ত অবস্থায় ধারালো ও ভারি কিছু দিয়ে যুবককে আঘাত করা হয়েছিল। ঘটনার পর থেকে যুবকের বাবা রবি রায় গা ঢাকা দিয়েছেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে পরিবারের সবাই নিশ্চিৎ হন নিজের ছোটছেলে তারককে খুন করে রবি রায় পালিয়ে গিয়েছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ খুনের মামলা রুজু করে তদন্তে নেমে যুবকের বাবার খোঁজ চালাচ্ছে।

- Advertisement -

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে খবর, রবি রায় পেশায় হকার। তাঁর দুই ছেলে ধনঞ্জয় ও তারক। ছোট ছেলে তারক সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করে। বড় ছেলে ধনঞ্জয় রায় বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাবা মা ছবি রায়ের সঙ্গে অশান্তি করতেন। বাবা মা’কে মারধরও করত। এই ঘটনা মেনে নিতে না পেরে বারে বারেই প্রতিবাদ করত ছোটো ভাই তারক। মঙ্গলবার রাতেও বাবা ও মায়ের অশান্তি চরমে উঠলে রেগে গিয়ে তারক বাবাকে চড় মেরে বসে।

ছবিদেবী জানান, মঙ্গলবার রাতের ঘটনার বদলা নিতেই হয়তো তাঁর স্বামী রবি রায় ছোট ছেলে তারককে খুন করে গা ঢাকা দিয়েছে।