ছেলের চিকিৎসার খরচ জোগাড় করতে না পেরে আত্মহত্যা করলেন বাবা

284

রায়গঞ্জ, ১৭ ফেব্রুয়ারিঃ ছেলে অসুস্থ ছিলেন। একাধিক চিকিৎসক দেখিয়েও, কোনও কাজ হয়নি। ভিন রাজ্যে নিয়ে চিকিৎসা করার সামর্থ্য নেই, তাই নিজের গলায় ও পেটে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাবা আত্মহত্যার চেষ্টা করল। দীর্ঘক্ষণ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ার পর অবশেষে সোমবার রাতে হেমতাবাদ থানার বাঙাল বাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের গুটিন গ্রামের বাসিন্দা বিষ্ণুপদ সরকার নামে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হল। তাঁর ছেলে আকাশ সরকার (৬) অসুস্থ হয়ে রয়েছেন। পেটের যন্ত্রনায় সারাক্ষণ কাতরাচ্ছে। এলাকার চিকিৎসককে দেখিয়েও সুরাহা হয়নি। চিকিৎসার জন্য এবার চেন্নাই নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও, প্রচুর অর্থের প্রয়োজন। একাধিক মানুষের কাছে টাকা ধার চাইলেও, তা জোগাড় হয়নি। ছেলের চিকিৎসার খরচ কীভাবে মিলবে তা নিয়ে, তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। এদিন এক ব্যক্তি জমি বন্ধক নিয়ে টাকা দেওয়ার কথা থাকলেও, ফোন মারফত মানা করে দেন। ঘরের বাথরুমে গিয়ে দরজা আটকে নিজের পেটে ও গলায় ক্ষুর চালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে জানা গিয়েছে। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। দীর্ঘ ১ ঘণ্টা ধরে অপারেশন চলে। পরে তাঁর মৃত্যু হয়। কর্তব্যরত শল্যচিকিৎসক সঞ্জয় শেঠের জানিয়েছেন, রোগীর শরীর থেকে প্রচুর পরিমানে রক্ত ক্ষরণ হয়েছিল।