আরও বিধ্বংসী হতে চান ধাওয়ান

চেন্নাই : দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন শিখর ধাওয়ান।

দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে একের পর ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্স বাঁহাতি ওপেনারের ব্যাটে। রবিবার পাঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধেও ৪৯ রানে ৯২ রান করেছেন। যদিও এতেও সন্তুষ্ট নন গব্বর। আরও আক্রমণাত্মক, বিধ্বসী হয়ে উঠতে চান।

- Advertisement -

মাত্র আট রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করলেও আক্ষেপ নেই। জানিয়ে দিলেন, ভয়ডরহীন মানসিকতার ব্যাটিং চালিয়ে যাবেন। লক্ষ্য স্ট্রাইক রেট আরও বাড়ানো! শিখর বলেন, আগ্রাসী ব্যাটিংই আমার লক্ষ্য ছিল। সেটাই করেছি। জানতাম, আমাকে স্ট্রাইক রেট বাড়াতে হবে। তাই ঝুঁকি নিয়েছি। এটাই বজায় রাখতে চাই। এভাবেই খেলব। সেঞ্চুরির না পেলেও আক্ষেপ নেই। বেশ কিছু শট নিয়ে প্রচুর খেটেছি। ফলে স্লগ শট অনেক ভালো হচ্ছে। দীর্ঘদিন খেলছি। যেকোনও পরিস্থিতিতে চাপ নেওয়ার সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি। অসুবিধা হয় না।

চতুর্থ ম্যাচে প্রতিপক্ষ মুম্বই। পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধেও দলের অন্যতম ভরসা সেই শিখরের ব্যাট। একইভাবে শিখরের ওপেনিং পার্টনার পৃথ্বী শ-র ফর্মটাও ভরসা জোগাচ্ছে রিকি পন্টিংদের। ব্যাটিং টেকনিকে রদববদলের সুফল পাচ্ছেন পৃথ্বী। পাঞ্জাব ম্যাচে ১৭ বলে ৩২ করে ভালো শুরু দেন। পৃথ্বীর কথায়, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফেরার পর আমার কোচ প্রশান্ত শেট্টি স্যার ও প্রবীন আমরে স্যারের কাছে ছুটে গিয়েছিলাম। বিজয় হাজারে ট্রফিতে যা কাজে লেগেছে। টেকনিকে অল্প কিছু পরিবর্তন করে বিজয় হাজারে নিজের সহজাত ক্রিকেট খেলেছি। তারপর সবকিছু ঠিকঠাক চলছে।

আইপিএলের যা অব্যাহত। ট্রেন্ট বোল্ট, জসপ্রীত বুমরাহদের বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে পৃথ্বী বলেন, আইপিএলের জন্য টি২০ ফর্ম্যাটে প্রচুর প্র‌্যাকটিস করেছি, তা কিন্তু নয়। তবে রিকি পন্টিং স্যার, প্রবীণ আমরে স্যার, প্রশান্ত শেট্টি স্যারের সঙ্গে বেশ কিছু ভালো সেশন করেছি। পন্টিং স্যার বলেছেন, ক্রিজে গিয়ে চাপমুক্ত খেলতে। প্রথম ৬ ওভারে পার্টনারশিপ সবসময় গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের (পৃথ্বী এবং শিখর) এনিয়ে সবসময় স্পেশাল স্ট্র‌্যাটেজি থাকে মাঠে নামার আগে।