পড়ুয়াদের ফি বকেয়া থাকলেও বের করা যাবে না স্কুল থেকে, নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

212

কলকাতা: পড়ুয়াদের ফি বকেয়া থাকলেও বের করে দেওয়া যাবে না স্কুল থেকে। বেসরকারি স্কুলগুলিকে নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের। শুক্রবার বিচারপতি আই পি মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চ এই নির্দেশ দিয়েছেন।

গত বছর এপ্রিল মাসে করোনা অতিমারি পরিস্থিতিতে ফি কম নেওয়ার আর্জিতে কলকাতা হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চ বেসরকারি স্কুলগুলিকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ফি নেওয়ার ক্ষেত্রে অন্তত ২০ শতাংশ ছাড় দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। আদালতের নির্দেশে বলা হয়েছিল এই বছর কোনও রকম ল্যাবরেটরি ফি, ক্রীড়া সংক্রান্ত ফি, পিকনিক ফি নেওয়া যাবে না। স্কুলগুলি অতিমারি পরিস্থিতিতে মোট পাঁচ শতাংশের বেশি লাভ রাখতে পারবে না। কিন্তু ওই নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হয় স্কুলগুলি। সুপ্রিমকোর্ট কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশই বহাল রাখে। সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ, বিচারপতি সুভাষ রেড্ডি ও বিচারপতি এম আর শার সাংবিধানিক বেঞ্চ হাইকোর্টের নির্দেশ এই অতিমারি পরিস্থিতিতে যথাযথ বলে নির্দেশে জানায়। সেই মামলাটি এখনও সুপ্রিমকোর্টে বিচারাধীন রয়েছে। আগামী ৫ এপ্রিল তার শুনানি রয়েছে। এমতাবস্থায় রাজ্যের বেসরকারি স্কুলগুলি ফি নিয়ে এক রকমের শোষণ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ, আদালতের নির্দেশ মানছে না বহু স্কুল। বিষয়টি নিয়ে অভিভাবকদের তরফে বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমি ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ডিভিশন বেঞ্চ তাঁদের বক্তব্য শোনার পর নির্দেশ দেন কোনও ছাত্র-ছাত্রীকে ফি বাকি থাকার জন্য স্কুল থেকে বের করে দেওয়া যাবে না। স্কুল গুলিকে তাদের বক্তব্য লিখিত আকারে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী ২৩ এপ্রিল ফের শুনানি এই মামলার।

- Advertisement -