বউকে কাঁধে তুলে নদী পার করে সংবর্ধিত শিবকুমার

251

কিশনগঞ্জ: নেপাল সীমান্তের নবদম্পতি শিব কুমার সিং ও সুনীতা সিংকে এসএসবির তরফে সংবর্ধনা জানান হল। বৃহস্পতিবার কিশনগঞ্জ সেক্টরের এসএসবি ১২ নম্বর ব্যাটালিয়নের কমান্ডেন্ট ললিত কুমারের নির্দেশে এসএসবির পলসা বিওপির সহায়ক কমান্ডেন্ট সুমন কুমার গরাই নবদম্পতিকে উপহার পাঠান। এই মুহূর্তকে স্মরণীয় করার জন্য শিবকুমারের বাড়িতে এসএসবির তরফে একটি আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।গত সোমবার লোহাগাড়ার শিব কুমার সিংয়ের সঙ্গে নেপাল সীমান্তের সিংহীমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের পলসা গ্রামের সুনীতা সিংয়ের বিয়ে হয়।

লোহাগাড়া থেকে পলসা যাতায়াত করতে মাঝপথে পরে খরস্রোতা কনকই নদী। এই খরস্রোতা নদীর উপর কোনও সেতু নেই। এই নদী পারাপারের একমাত্র ভরসা নৌকা ও বাঁশের সাঁকো। কিন্তু তাঁদের বিয়ের আগেই এই নদীর হরপা বানে বাঁশের সাঁকো ভেসে যায়। বিয়ের দিন ও বিয়ে করে লোহাগাড়া গ্রামে ফেরার পথে নদী পারাপারের একমাত্র ভরসা ছিল নৌকা। নববধূকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে পলসা ঘাটে বরযাত্রী সমেত শিবকুমার নৌকায় চড়েন। সেসময় হঠাৎ নদীতে জল বাড়তে শুরু করে। কনকই হরপা বানের জন্য কুখ্যাত। এই বান অনেক ভাঙাগড়ার সাক্ষী। সেজন্য ভয়ে মাঝি নদী পারাপারের জন্যে অস্বীকার করেন। অপরদিকে নদীর জল ক্রমশ বাড়তেই থাকে। সেসময় কোনও উপায় না থাকায় নববধূকে নৌকা থেকে ঘাড়ে তুলে নিয়ে নতুন বর শিব কুমার সিং নদী পার করান। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

- Advertisement -

সুমনবাবু জানান, এসএসবি সবসময়ই সীমান্তবাসীদের সুখ দুঃখের সাথী। সেজন্য পলসার মেয়ে নববধূ সুনীতা সিংয়ের প্রাণ বাঁচানোর জন্য এসএসবি গ্রামের নতুন জামাইকে সম্মানিত করল।