উত্তরবঙ্গজুড়ে কেন পালিত ১৮ জুলাই, জেনে নিন

314
চোপড়া

উত্তরবঙ্গ ব্যুরো: উত্তরবঙ্গের প্রেক্ষিতে ১৮ জুলাই দিনটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। ইন্ডিয়ান ইন্ডিপেন্ডেন্ট অ্যাক্টের অধীনে ব্রিটিশ সরকার ১৭৭৩ সন থেকে ১৯০২ সন পর্যন্ত দক্ষিন দিনাজপুর, উত্তর দিনাজপুর, জপাইগুড়ি, দার্জিলিং এবং অবিভক্ত অসমের গোয়ালপরিয়া জেলা অধিগ্রহণ করে রাখে। পরে ১৯৪৭ সালের ১৮ জুলাই ব্রিটিশ সরকার মহারাজা জগদ্দীপেন্দ্রনারায়ন ভুপ বাহাদুরের কাছে লিখিতভাবে এই সমস্ত এলাকা ফিরিয়ে দেন। সেইদিন থেকেই কোচবিহার সার্বভৌমত্ব লাভ করে। রবিবার উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় এই দিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়। গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের চোপড়া ব্লক কমিটি দিনটি পালন করে। এদিন চোপড়া ব্লকের সোনাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সুফলগছে সংগঠনের ব্লক নেতৃত্বের উদ্যোগে আনুষ্ঠানিকভাবে দিনটি উদযাপন করার পাশাপাশি বিশেষ এই দিনটির তাৎপর্য তুলে ধরা হয়।

উত্তরবঙ্গজুড়ে কেন পালিত ১৮ জুলাই, জেনে নিন| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
হেলাপাকড়ি

গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের পদমতি ২ অঞ্চল কমিটির তরফেও মর্যাদার সঙ্গে দিনটি উদযাপন করা হয়। হেলাপাকড়ি সর্দারপাড়া বাঁধের পাড়ে অঞ্চল কমিটির সভাপতি শচীন রায় কোচবিহার রাজ্যের রাষ্ট্রীয় চিহ্ন হনুমানদন্ড যুক্ত পতাকা উত্তোলন করেন।

- Advertisement -
উত্তরবঙ্গজুড়ে কেন পালিত ১৮ জুলাই, জেনে নিন| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
মেটেলি

ওই এসোসিয়েসনের তরফে মেটেলি কলাবাড়ি বস্তি, বিধাননগর কলাবাড়ি, বাতাবাড়ি খরপাড়া, মঙ্গলবাড়ি বস্তি এলাকায় দিনটি পালন করা হয়। এদিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংগঠনের সদস্যরা কোচবিহার রাজ্যের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

উত্তরবঙ্গজুড়ে কেন পালিত ১৮ জুলাই, জেনে নিন| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
পারডুবি

এদিন মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের টাপুরডাঙ্গা এলাকায় ঐতিহাসিক ১৮ জুলাই দিবস পালিত হল যথাযোগ্য মর্যাদার সহিত। পাশাপাশি দিনটির তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করা হয় বলে জানিয়েছেন উপস্থিত নেতৃত্ব।