রাইস মিল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

151

বর্ধমান: সহায়ক মূল্যে চাষিদের থেকে কেনা ধান আত্মসাতের অভিযোগে রাইস মিল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করল অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সরবরাহ দপ্তর। দপ্তরের পূর্ব বর্ধমান জেলা ম্যানেজার রাজু মুখোপাধ্যায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ প্রতারণা ও সরকারি সম্পত্তি আত্মসাতের মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে গলসির কৃষক মহলে।

অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সরবরাহ দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, গলসির পারাজের উত্তরপাড়ার সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতির মাধ্যমে চাষিদের কাছ থেকে ধান কেনে সরকার। সেই ধান পারাজের ওই রাইস মিলটিতে জমা দেওয়া হয়। ২০১৯ সালের ১৮ ডিসেম্বর থেকে ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সংগৃহীত ১২০৬.৫৮২ মেট্রিক টন ধান ওই  মিলটিকে দেওয়া হয়। সেই ধানের পরিবের্ত ৮২০.৫৭৬ মেট্রিক টন চাল সরকারকে দেওয়ার কথা ছিল। যদিও মিল কর্তৃপক্ষ সেই চাল আজও দেয়নি। এমনকি  ধানও ফেরত দেয়নি।

- Advertisement -

এই পরিস্থিতিতে চাল না দেওয়ার কারণ দর্শানোর জন্য সরকারের তরফে পারাজের ওই রাইস মিল কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার চিঠি পাঠায় সংশ্লিষ্ট দপ্তর। অভিযোগ এত কিছুর পরেও রাইস মিল কর্তৃপক্ষ মুখে কুলুপ এঁটেছে। এরপরেই ওই মিলের রিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়৷