কলকাতায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ক্যানিং স্ট্রিটের বহুতলে আগুন

224

অনলাইন ডেস্ক: ফের কলকাতায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল। আবারও সেই বড়বাজারে আগুন লাগল। ১০৯ নম্বর ক্যানিং স্ট্রিটের বহুতল থেকে রবিবার সকাল পৌনে দশটা কালো ধোঁয়া বেরোতে দেখা যায়।

স্থানীয় বাসিন্দারা ধোঁয়া দেখে দমকলে খবর দেন। দমকলের ৭টি ইঞ্জিন কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয় দমকলকর্মীদের। ওই ভবনের চারতলা থেকে প্রথমে ধোঁয়া বেরোতে দেখা যায়।

- Advertisement -

তবে কোথা থেকে আগুন লাগল সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত নয় দমকল। তবে দমকলের প্রাথমিক অনুমান, একতলা থেকে আগুন ছড়িয়েছে। দমকলের পাশাপাশি কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা দলও ঘটনাস্থলে যায়। আগুন নেভানোর সময় কাচ ভাঙতে গিয়ে এক দমকলকর্মী আহতও হন।

দমকলকর্মীদের অনুমান, প্রচুর পরিমাণে দাহ্য পদার্থ মজুত থাকার কারণেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। যে দোকানে প্রথম আগুন লাগে সেটি ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে। রবিবার ছুটির দিন হওয়ায় বাজার বন্ধ ছিল। সে কারণেই বড়সড় দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে। ওই ভবন পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল, তা খতিয়ে দেখছে দমকল।

এই বহুতলে ইমিটেশন জুয়েলারির দোকান এবং প্লাস্টিকের গোডাউন রয়েছে। প্লাস্টিকের গোডাউন থেকেই আগুন লেগেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, বড়বাজারের ঘিঞ্জি এলাকায় মাঝেমধ্যেই আগুন লাগে। ২০০৮ সালে নন্দরাম মার্কেটে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল। ২০১৮-তে বাগরি মার্কেটে আগুন লাগে। ২০১৯-এও ফের নন্দরাম মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যেকবার আগুন লাগার পড়েই নানা বিষয়ে কড়াকড়ি করে দমকল। অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে অনেক আগেই। একাধিক নিয়মকানুনও চালু করেছে কলকাতা পুরসভা। তবে সেই সমস্ত নিয়মকানুন যে খাতায় কলমেই রয়ে গিয়েছে, আজকে ঘটনা তা আবারও প্রমাণ করে দিল।