উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র, একাধিক মামলায় গ্রেপ্তার ৬৯

138

মাথাভাঙ্গা: মাথাভাঙ্গা ও শীতলকুচি থানা এলাকা থেকে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র সহ ২ জন দুষ্কৃতী এবং একাধিক পুরোনো মামলায় অভিযুক্ত ৬৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার মাথাভাঙ্গা মহাকুমা জুড়ে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ওই আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়। ধৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রজু করেছে পুলিশ। মাথাভাঙ্গা পুলিশের অ্যাডিশনাল এসপি সিদ্ধার্থ দোরজি জানান, ধৃতদের পুলিশি হেপাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। পাশাপাশি এত আগ্নেয়াস্ত্র কোথা থেকে এল এবং এর পেছনে কোন চক্র কাজ করছে তা খুঁজে বের করতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

অ্যাডিশনাল এসপি সিদ্ধার্থ দোরজি শুক্রবার সকালে মাথাভাঙ্গায় সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, বৃহস্পতিবার রাতে মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের ধরলা সেতুর কাছ থেকে জোরপাটকির নগর গোপালগঞ্জের বাসিন্দা মহাবুল আলি খন্দকার নামে এক দুষ্কৃতীকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করেছে শীতলকুচি থানার পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে একটি ৭.৬৫ মডেলের পিস্তল ও একটি ওয়ান শাটার পিস্তল সহ ১৯ রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যদিকে ওই রাতেই মাথাভাঙ্গার শিকারপুর থেকে কেশরিবাড়ির বাসিন্দা বিপিন বর্মন নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করেছে মাথাভাঙ্গা থানার পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে একটি ওয়ান শাটার পিস্তল ও ১ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে।

- Advertisement -

অ্যাডিশনাল এসপি জানান, বৃহস্পতিবার রাতে মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের গেন্দুগুড়ি থেকে ৮টি, শীতলকুচি থেকে ৪টি এবং মেখলিগঞ্জ থেকে ৪টি তাজা বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বোমা গুলি পুলিশের তরফে নিষ্ক্রিয় করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।