হলদিবাড়িতে প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিস

1606

অমিতকুমার রায়, হলদিবাড়ি: এবার হলদিবাড়িতে করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল। তিনি হলদিবাড়ি শহরের পূর্বপাড়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের একজন স্টাফ নার্স হিসেবে তিনি কর্মরত। রবিবার তাঁর শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে। হলদিবাড়িতে এই প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল। এদিকে তাঁর স্বামী শহরের একটি র‍্যাশনের দোকান চালান। স্ত্রীর সঙ্গে তিনিও সংক্রমিত হলে গোষ্ঠি সংক্রামণের সম্ভবনাও থেকে যাচ্ছে। এতেই আতঙ্কিত হলদিবাড়ির মানুষজন।

ব্লক স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, ওই স্বাস্থ্যকর্মী জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে লেবার ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্সিং স্টাফ। বুধবার তাঁর লালার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। রবিবার রিপোর্ট এলে দেখা যায় তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। রাতে সেই খবর এসে পৌঁছায় হলদিবাড়ি ব্লক প্রশাসনের নিকট। এতেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

- Advertisement -

এদিকে খবর পৌঁছাতেই নড়েচড়ে বসে হলদিবাড়ি ব্লক প্রশাসন। রাতেই ওই স্বাস্থ্য কর্মীর বাড়ির সামনে পৌঁছান বিএমওএইচ ডাঃ তাপস কুমার দাস, হলদিবাড়ির বিডিও সঞ্জয় পন্ডিত, হলদিবাড়ি থানার আইসি দেবাশীষ বসু, মেখলিগঞ্জের বিধায়ক অর্ঘ্য রায় প্রধান সহ পুর স্বাস্থ্য কর্মীরা। রাতেই ওই স্বাস্থ্যকর্মীর বাড়ি বাঁশ দিয়ে ঘিরে ফেলার ব্যবস্থা করা হয়। সেই সঙ্গে অন্য সদস্যদের বাড়ি থেকে না বের হওয়ার নির্দেশ জারি করা হয়।

বিডিও সঞ্জয় পন্ডিত জানান, ওনার দেহে কোন উপসর্গ ছিল না। স্বাস্থ্যকর্মী হওয়ায় তাঁর লালারসের নমুনা টেস্ট করা হয়। তাতেই বিষয়টি সামনে আসে। তাঁর স্বামীর রেশন দোকানের বিষয়ে সোমবার আয়োজিত বৈঠকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।