জলাশয়ে মাছের মড়ক, ক্ষতির আশঙ্কায় স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা

189

ফুলবাড়ি: কয়েকদিন ধরে জলাশয়ের মাছ মরে ভেসে উঠছে। স্বাভাবিকভাবেই চিন্তা বাড়ছে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার মাথাভাঙা-২ ব্লকের বড় শৌলমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের দরিবশ ফুলবাড়ি ২৯ নম্বর বুথ(দক্ষিণ সিঙ্গিজানি) এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাথাভাঙা-২ পঞ্চায়েত সমিতির তরফে ওই জলাশয়ের ডাক(নিলাম) দেওয়া হয়। তিন বছরের জন্য জলাশয়ের ডাক নেয় স্থানীয় বীণাপাণি মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠী। ১৮ বিঘা এলাকা জুড়ে রয়েছে জলাশয়টি।

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর কোষাধ্যক্ষ রিতা বিশ্বাস বলেন, ‘৩ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা দিয়ে জলাশয়টি ডাক নেওয়া হয়েছে। জলাশয়ে মাছ চাষ করার জন্য আড়াই লক্ষ টাকা ব্যাংক থেকে লোন নেওয়া হয়েছে। জলাশয়ে ৮০ কুইন্টালের মত মাছ ছিল। গত তিন দিন ধরে জলাশয়ের ছোট বড় মাছ মরে ভেসে উঠছে। কেন মরছে কিছু বুঝতে পারছিনা। আমাদের চিন্তা বাড়ছে। এভাবে মাছ মরতে থাকলে ব্যাংক লোন শোধ করব কীভাবে। বিষয়টি মাথাভাঙা-২ পঞ্চায়েত সমিতির প্রাণীসম্পদ ও মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ করুণা বর্মনকে ফোনে জানানো হয়েছে।’

- Advertisement -

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সভাপতি কমলা বিশ্বাস বলেন, ‘আমরা লাভের আশায় কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করে জলাশয়ে মাছের চাষ করেছি। কিন্তু হঠাৎ করে মাছের মরক শুরু হওয়ায় আমরা সবাই চিন্তিত। বিষয়টি মাথাভাঙা-২ ব্লকের বিডিওকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।’ মাথাভাঙা-২ পঞ্চায়েত সমিতির প্রাণীসম্পদ ও মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ করুণা বর্মন বলেন, ‘বিষয়টি আমাকে জানানো হয়েছে। খোঁজ নিয়ে দেখার পাশাপাশি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।’