বর্ধমান, ১৯ জুলাইঃ উত্তরবঙ্গ হলেও বৃষ্টির দেখা নেই দক্ষিণবঙ্গে। বৃষ্টি না হওয়ায় জলাধার থেকে শুরু করে সেচ খাল সবেতেই দেখা দিয়েছে জল ঘাটতি। কার্যত খরার মতো পরিস্থিতি দক্ষিণবঙ্গজুড়ে। এই পরিস্থিতিতে শিকেয় উঠেছে চাষবাস। তাই সংকট নিরসনে শুক্রবার বর্ধমান সার্কিট হাউসে জরুরি বৈঠকে বসেন পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, হুগলি, হাওড়া ও বাঁকুড়া জেলার আধিকারিকরা। বৈঠক শেষে বর্ধমান রেঞ্জের ডিভিশনাল কমিশনার বরুণ রায় জানান, চলতি মরশুমে  বৃষ্টিপাতের ঘাটতি রয়েছে ৪০ শতাংশ। সেই কারণে দামোদর ও মাইথন জলাধারে জলের উচ্চতা এই মরশুমে স্বাভাবিকের থেকে কম রয়েছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে এদিনের বৈঠকে স্থির হয়েছে ২৮ জুলাই থেকে খরিফ মরশুমের জন্য জল ছাড়া হবে দফায় দফায়। অন্যদিকে, পূর্ব বর্ধমান জেলা কৃষি আধিকারিক জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায় বলেন, বৃষ্টিপাত  স্বাভাবিক না হলে সংকট দেখা দেবে কৃষিতে।