ট্যাংকার নিয়ে মদ্যপ চালকের তাণ্ডব, জখম পাঁচ পুলিশকর্মী

288

রায়গঞ্জ: মদ্যপ ট্যাংকার চালকের তাণ্ডবে জখম হলেন এক পুলিশ অফিসার সহ পাঁচজন পুলিশকর্মী। রবিবার দুপুরে রায়গঞ্জ শহরের শিলিগুড়ি মোড় এলাকায় ট্রাফিক অফিসের সামনে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে নিজের ভুল বুঝতে পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই ট্যাংকার চালক। ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। অভিযুক্ত চালককে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ট্যাংকার চালকের নাম সঞ্জয় যাদব বাড়ি বিহারের পাটনাতে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, একটি ট্যাংকার নিয়ে গুয়াহাটি থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলে ওই চালক। রায়গঞ্জের অদূরে পানিশালা ও বারদুয়ারী মোড়ে ১২ নম্বর জাতীয় সড়কে পরপর দুটি গাড়িতে ধাক্কা মেরে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে চালক। খবর পেয়ে পুলিশ ওই ট্যাংকারটিকে আটক করে। মদ্যপ অবস্থায় ওই লরি চালককে আটক করে ট্রাফিক অফিসে আনতেই শুরু হয় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি। চালকের মারে জখম হন এক পুলিশ অফিসার সহ পাঁচ পুলিশকর্মী। এরপর ওই চালক নিজের মাথায় ভারি বস্তু দিয়ে আঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের শল্যচিকিৎসক সঞ্জয় শেঠ বলেন, ‘প্রচুর পরিমাণ মদ্যপানের পাশাপাশি ব্রাউন সুগার নেওয়ার জন্যই চালক এহেন ঘটনা ঘটিয়েছে।‘ রায়গঞ্জ থানার আইসি কৃষ্ণেন্দু দাস বলেন, ‘অভিযুক্ত চালক সহ ট্যাংকারটিকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। চালক সুস্থ হওয়ার পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।‘

- Advertisement -