ভেঙে পড়ল ফ্লাড সেন্টার, প্রাক বর্ষার মরশুমে দুশ্চিন্তায় স্থানীয়রা

83

তুফানগঞ্জ: আচমকাই ভেঙে পড়ল বালাভূত গ্রাম পঞ্চায়েতের চর বালাভূতের ফ্লাড সেন্টার। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, নদী ভাঙনের জেরে শুক্রবার গভীর রাতে ওই ফ্লাড সেন্টারটি ভেঙে পড়ে। ঘটনায় ক্ষোভে ফুসতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা। সেক্ষেত্রে একপ্রকার প্রশাসনকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে স্থানীয়দের মন্তব্য, বাঁধ নির্মাণের জন্য পাথর পড়লেও কাজ শুরু না হওয়ার ফলস্বরূপ ভেঙে পড়ল ফ্লাড সেন্টারটি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, নদী ভাঙনের জেরে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ওই ফ্লাড সেন্টার লাগোয়া একটি এমএসকে স্কুল নদী গর্ভে চলে যায়। এরপরেই বাঁধ নির্মাণের দাবি ওঠে। যদিও সেই কাজ এখনও অধরা। স্বাভাবিভাবেই আসন্ন বর্ষায় ফের প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কায় স্থানীয়রা। এবিষয়ে ওসমান আলি, রাকিব হোসেনরা জানান, বর্ষার মরশুমে ওই ফ্লাড সেন্টারটিই সকলেই একমাত্র ভরসা ছিল। সেটিও ভেঙে পড়ল। ফের বর্ষা আসছে। কোথায় থাকব তা ভেবেই ঘুম উড়েছে সকলের। তাঁরা আরও জানান, চর বালাভূত গ্রামে জীবন-যাপন করাই এক চ্যালেঞ্জ। আমলা থেকে শুরু করে কারও নজর নেই। তবে, স্থানীয় নেতাদের চেষ্টায় পানীয় জল, সৌর বিদ্যুতের ব্যাবস্থা হলেও নেই-এর তালিকা যথেষ্টই দীর্ঘ।

- Advertisement -

স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান মিনতি বর্মন বলেন, ‘কালজানী নদীর ভাঙ্গনের জেড়েই ফ্লাড সেন্টারটি ভেঙে পড়ে। সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করে তুফানগঞ্জ-১ ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের কাছে পাঠাব। তবে বর্ষার মরশুমে চর বালাভূত প্লাবিত হলে মানুষদের কোথায় ঠাঁই দেওয়া হবে তা নিয়ে চিন্তা বাড়ছে। এমতবস্থায় বন্যার পরিস্থিতি হলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তায় কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে তা নিয়ে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করা প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে ব্লক আধিকারিকদের সাঙ্গে আলোচনা করা হবে।’